নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: আরএসএস কর্মী খুন হওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য৷ মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জে এই ঘটনা ঘটেছে৷ মৃত ওই আরএসএস কর্মীর নাম বন্ধু প্রকাশ পাল৷ খুন করা হয়েছে তাঁর গোটা পরিবারকে৷ দেহ উদ্ধার হয়েছে তাঁর স্ত্রী বিউটি পাল ও ৬ বছরের শিশুসন্তান আনন্দ পালের৷

এদিন সকালে প্রতিবেশীরা বাড়ির ভিতর থেকেই দেহগুলি উদ্ধার করেন৷ সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় পুলিশে৷ প্রাথমিক তদন্তে অনুমান এই তিনজনকেই কোনও ধারাল অস্ত্রের সাহায্যে খুন করা হয়েছে৷ স্ত্রী বিউটি পাল গর্ভবতী ছিলেন বলে সূত্রের খবর৷

আরও পড়ুন : মায়ের কোল থেকেই চুরি দুধের শিশু, ঘটনায় হতবাক সকলে

যে অস্ত্র দিয়ে আরএসএস কর্মীর পরিবারকে খুন করা হয়েছে, তা উদ্ধার করেছে পুলিশ৷ সূত্রের খবর ওই মৃত আরএসএস কর্মী পেশায় স্কুল শিক্ষক ছিলেন৷ গত ২০ বছর ধরে মুর্শিদাবাদের গোঁসাইগ্রাম সাহাপাড়া প্রাইমারি স্কুলে শিক্ষকতা করছেন তিনি৷

পুলিশ জানিয়েছে আদতে সাহাপুরের বাসিন্দা হলেও, ছেলের পড়াশোনার জন্য ওই পরিবার পরে মুর্শিদাবাদে চলে আসে৷ কোনও বিবাদের জেরে এই খুন কীনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ৷ তবে স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন কোনও শত্রুতা ওই পরিবারের কারোর সঙ্গে ছিল না৷ তবে খুব নির্মম ভাবে ওই পরিবারকে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷