নয়াদিল্লি:  দেশে হু হু করে বাড়ছে জনসংখ্যা। এই অবস্থায় ভারতে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করাটা খুব প্রয়োজন বলে ইতিমধ্যে আওয়াজ তুলেছে অনেকেই। তাঁদের সঙ্গেই একমত আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত। উত্তর প্রদেশের মোরাদাবাদে এক সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে আরএসএস প্রধান বলেন, দেশে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন জরুরি। কারও যাতে সন্তানসংখ্যা দুয়ের বেশি না হয়, তা নিশ্চিত করতে হবে। তাঁর মতে, একমাত্র এভাবেই জনসংখ্যা বৃদ্ধিতে লাগাম পরানো সম্ভব। যদিও আরএসএস প্রধানের সঙ্গে অনেকেই একমত নয়।

৪ দিনের জন্য মোরাদাবাদ গিয়েছেন মোহন ভাগবত। সেখানে তিনি বৈঠকে বসেন উত্তরাখণ্ড ও পশ্চিম উত্তর প্রদেশের মেরঠ ও ব্রজ এলাকার সঙ্ঘ পদাধিকারী ও কার্যকর্তাদের সঙ্গে। একাধিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। যার মধ্যে গুরুত্বপূন রামমন্দির ইস্যু।

জানা গিয়েছে, বন্ধ ঘরে আলোচনায় মোহন ভাগবত বলেন, রাম মন্দির সঙ্ঘের প্রধান অ্যাজেন্ডা ছিল। খুব শিগগিরই মন্দির তৈরি হবে। রাম মন্দির ট্রাস্ট গঠনের পর সঙ্ঘ মন্দির ইস্যু থেকে সম্পূর্ণ পৃথক হয়ে যাবে। তিনি বলেন, সঙ্ঘের পরবর্তী পদক্ষেপ দেশে দুই সন্তান গ্রহণের আইন চালু করা। যাতে জনসংখ্যা বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

সর্ব ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক, মোহন ভাগবত জানিয়েছেন, কাশী কিংবা মথুরা ইস্যু কোনও দিনই আরএসএসের ইস্যু ছিল না। আগামিদিনে এই দুটি বিষয় আরএসএসের ইস্যু হবে না বলেই সাফ জানিয়ে দিয়েছেন। তবে আগামিদিনে দুই সন্তান গ্রহণের আইন নিয়ে পদক্ষেপ সংঘ করবে বলে জানিয়েছেন মোহন। বৈঠকে আরএসএস প্রধান জানিয়েছেন, দুই সন্তান আইনের জন্য দেশজুড়ে সচেতনতা তৈরি করবে আরএসএস। চেষ্টা করবে, যাতে এই আইন চালু হয়। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে পিছু হঠার প্রয়োজন নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি।