নয়াদিল্লি: কংগ্রেসের গরিব দরদী মনোভাব বোঝাতে রাহুল গান্ধী ঘোষণা করেন, ক্ষমতায় এলে দেশের ২০ শতাংশ গরিব পরিবারকে বছরে ৭২ হাজার টাকা দেওয়া হবে৷ আর তা শুনে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন নীতি আয়োগের ডেপুটি-চেয়ারম্যান রাজীব কুমার৷ তাঁর বক্তব্য, রাহুল গান্ধীর বছরে ৭২,০০০ টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি মাধ্যমে ভোটে ক্ষমতায় এলে কাজ না করার ব্যাপারে অনুপ্রাণিত হবে জনগণ এবং আর্থিক শৃঙ্খলায় ফাটল ধরবে৷

আরও পড়ুন: রাহুলের ন্যূনতম আয়ের ঘোষণাকে ‘ভাওতাবাজি’ বললেন অরুণ জেটলি

প্রসঙ্গত, এদিন দুপুরে রাহুল গান্ধী বলেন, ‘‘ক্ষমতায় এলে দেশের ২০ শতাংশ গরিব পরিবারকে বছরে ৭২ হাজার টাকা দেওয়া হবে৷ এই ৭২ হাজার টাকা সরাসরি তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পড়বে৷ এতে ৫ কোটি পরিবার উপকৃত হবে৷ নতুন প্রকল্পের নাম ন্যায়৷ ’

যা দেখে রাজীবকুমার টুইট করে লেখেন, ‘‘পূর্বের রেকর্ড অনুসারে নির্বাচন জিততে চাঁদ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি রয়েছে, কংগ্রেস সভাপতি যে প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেছেন তা আর্থিক শৃঙ্খলায় ফাটল ধরাবে এবং কাজ না করার ব্যাপারে অনুপ্রাণিত হবে তাই এমনটা চালু না করা উচিত৷’’

আরও পড়ুন: শাস্ত্রীজি মরে না মার দিয়া গ্যায়া’, প্রশ্ন তুললেন মিঠুন

অপর একটি টুইটে তিনি জানান, ন্যূনতম আয় গ্যারান্টি প্রকল্পের মাধ্যমে জিডিপি-র ২ শতাংশ এবং বাজেটের ১৩ শতাংশ দেওয়ার মানে জনগণের প্রকৃত প্রয়োজন মিটছে না৷ এই প্রসঙ্গে রাজীব কুমার উল্লেখ করেছেন, ১৯৭১ সালে কংগ্রেসের গরীবি হঠাও প্রতিশ্রুতি ছিল , এক পদে এক পেনশন ছিল ২০০৮ সালে , খাদ্য সুরক্ষা ছিল ২০১৩ সালে কিন্তু কোনটাই পূরণ করা হয়নি৷ একই রকম ভাবে এই ন্যূনতম আয় গ্যারান্টি প্রকল্পটিও দুর্ভাগ্যজনক একটি জনপ্রিয় প্রতিশ্রুতি হবে বলে অভিমত প্রকাশ করেন৷৷

পপ্রশ্ন অনেক: একাদশ পর্ব

লকডাউনে গৃহবন্দি শিশুরা। অভিভাবকদের জন্য টিপস দিচ্ছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ।