মুম্বই: শেয়ারে এমনই এক সম্পদ যা দীর্ঘময়াদে সম্পদ সৃষ্টি করতে সক্ষম৷ সেক্ষেত্রে অবশ্যই লগ্নির জন্য সঠিক শেয়ার নির্বাচন করাটা অন্যতম শর্ত৷ তবে মতিলাল অসওয়াল ব্রোকারেজ সংস্থার ২০১২-২০১৭ এই পাঁচ বছরের সম্পদ সৃষ্টির সমীক্ষা জানিয়েছে, অজন্তা ফার্মার বিনিয়োগকারীদের সম্পদ ২৯ গুণ বাড়িয়ে দিয়েছে ৷

যারা ২০১২ সালে এই শেয়ারে ৩.৫ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করেছিল তাদের গত পাঁচ বছরে শেয়ারের মূল্য এ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গিয়েছে ৷ ওই ব্রোকারেজ সংস্থার সমীক্ষা অনুসারে গত পাঁচ বছরে অজন্তা ফার্মা সবচেয়ে দ্রুত সম্পদ সৃষ্টিকারী শেয়ার৷ যারফলে বিনিয়োগরাকীরদের লগ্নির অর্থ প্রতি নয় মাসে দ্বিগুণ হয়ছে৷ এই সংস্থার বাজারে থাকা মূলধন গত পাঁচ বছরে ১৪,৯০০ কোটি টাকা বেড়েছে৷

একই রকম ভাবে বাসমতি চাল উৎপাদনকারী সংস্থা কেআরবিএল এবং বাজাজ ফিনান্স গত পাঁচ বছরে সম্পদ সৃষ্টিতে যথাক্রমে দ্বিতীয় এবং তৃতীয়৷ এই সময়ে কেআরবিএল এবং বাজাজ ফিনান্স শেয়ারের মূল্য বেড়েছে যথাক্রমে ২৩ এবং ১৫ গুণ৷

এদিকে ব্রোকারেজ সংস্থার সমীক্ষা অনুসারে গত দশ বছরের (২০০৭ থেকে ২০১৭ সাল) সাপেক্ষে সবেচেয়ে ভাল ভাবে সম্পদ সৃষ্টি করেছে এশিয়ান পেন্টস৷ দশ বছরের সাপেক্ষে বৃদ্ধির নিরিখে অন্যান্য ভাল সংস্থাগুলি এইচডিএফসি ব্যাংক, কোটাক মহিন্দ্রা৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.