প্রতীকী ছবি

ভোপাল: করোনা ভাইরাসে সংক্রমণ বেশ অনেকটা গতি বাড়িয়েছে গোটা দেশ। মধ্যপ্রদেশেও সেই ছবিটা একইরকম। সেই সঙ্গে জুড়েছে পঙ্গপালের দল। এই তাই করোনা আবহে হোম কোয়েরেন্টাইনের নিয়ম ভাঙলে জরিমানা দিতে হবে বলেই ঘোষণা করা হয়েছে।

বিবৃতিতে এও জানানো হয়েছে, দ্বিতীয়বারের জন্য এই নিয়ম ভাঙলে সেই ব্যাক্তিকে হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে আইসোলেশন সেন্টারে নিয়ে আসা হবে।

কেন্দ্রীয় সরকারের নিয়ম অনুযায়ী, উপসর্গের আগের পর্যায়ে এবং মাইল্ড উপসর্গ নিয়ে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। পাশাপাশি, করোনা সন্দেহ হলে ওই ব্যাক্তিকে হোম-কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম মেনে চলতে হবে।

নির্দেশে বলা হয়েছে, “প্রথমবার হোম কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম ভাঙলে ওই ব্যাক্তিকে ২০০০ টাকা জরিমানা দিতে হবে এবং দ্বিতীয়বার নিয়ম ভাঙলে তাঁকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হবে”।

বুধবার রাত অবধি করোনা ভাইরাসে সংক্রমণ ছিল ৭,২৬১ এবং মৃত্যু হয়েছে ৩১৩ জনের। এখনও অবধি ৩,৯২৭ জন সুস্থ হয়েছেন। রাজ্যের ৫২ জেলার ৫০ জেলাতেই থাবা বসিয়েছে করোনা ভাইরাস।

সারা দেশ বর্তমানে দীর্ঘদিন ধরে লড়ছে করোনার সঙ্গে। এরমধ্যে নতুন উৎপাত হিসেবে দেখা দিয়েছে পঙ্গপাল। এই নতুন বিপদকে হালকা ভাবে নেওয়ার সাহস দেখাতে পারছেন না কৃষকরা। তাই পঙ্গপাল রুখতে সচেষ্ট হয়েছে প্রশাসনও।

মধ্যপ্রদেশেও হানা দিয়েছে পঙ্গপাল। মধ্যপ্রদেশ কৃষি দফতর কৃষকদের জানিয়েছে, পঙ্গপাল হানা দিলে তাদের প্রবল শব্দ করে তাড়িয়ে দিতে। সেজন্য ড্রাম এমনকী থালা-বাটি বাজানোর কথা বলা হয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, এই পতঙ্গদের যদি আটকানো না যায়, তবে দেশের শস্যভান্ডারে টান পড়তে পারে। এই পতঙ্গরা সংখ্যায় প্রচুর হয়ে হামলা করায় বড়সড় ক্ষতির মুখে পরতে হতে পারে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV