নয়াদিল্লি: দেশের মাটিতে প্রথমবার ছুটবে RRTS ট্রেন।

শুক্রবার এই প্রথম লুক প্রকাশ্যে আনেন কেন্দ্রীয় সচিব দুর্গা শঙ্কর মিশ্র। প্রথম পর্যায়ে তিনটি করিডরকে এই ট্রেনের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম দিল্লি-গাজিয়াবাদ-মীরট।

ছবি প্রকাশ করে কেন্দ্রীয় আবাসন ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রকে দাবি, ৮২ কিলোমিটার লম্বা করিডরে ১৮২ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় দৌড়বে ট্রেনটি।

NCRTC জানিয়েছে, ভারতে এই ধরনের ট্রেন এই প্রথমবার ছুটবে। এতে থাকবে আলো ও তাপমাত্রার কন্ট্রোল সিস্টেম। অর্থাৎ প্রয়োজনে আলো ও উত্তাপ কমানো বা বাড়ানো যাবে।

বর্তমানে সড়ক পথে দিল্লি থেকে মেরঠ যেতে সময় লাগে ৩-৪ ঘণ্টা। সেই রুটেই এই ট্রেনে করে এক ঘণ্টারও কম সময়ে পৌঁছে যাওয়া যাবে।

এই ট্রেনের বাইরের দিকটি তৈরি স্টেনলেস স্টিলে। এই ট্রেন ওজনে হালকা, পুরোপুরি এয়ার কন্ডিশনড।

একটি কামরা থাকবে মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত। প্রতি কামরার থাকবে ২ পাশে ৩টি করে দরজা। বিজনেস ক্লাসের কামরায় ২ দিকে ২টি করে দরজা।

আরামদায়ক বসার জায়গার সঙ্গে মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ চার্জিং পয়েন্ট, ওয়াইফাই সহ একাধিক সুবিধা থাকবে।

২০২৫ সালে সাধারণের জন্য এই করিডর খুলে দেওয়ার কথা।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।