বিরমিংহ্যাম: বলিউডের ‘চিটিয়া কালাইয়া’র খোঁজ পাওয়া গেল বিরমিংহ্যামে। ‘মন জাভে মেনু শপিং করাদে/মন জাভে মেনু পিকচার দিখাদে’ জ্যাকলিনের মতনই দাবি বিরমিংহ্যামের এই মহিলার। আর সেই দাবি পূরণ করতেই পেড ডেটে যান রোজ ক্লিফর্ড নামের এই মহিলা।

সময় কাটানোর বিনিময়ে অচেনা পুরুষরা তার হাতে তুলে দেয় দামী দামী উপহার, আবার কখনও টাকা। কিন্তু এই সময় কাটানোর মধ্যে ‘যৌনতা’ নামক কিছুই নেই। ১৯ বছরের রোজ এই ছাত্রী শুধু ডেটে গিয়েই টাকা রোজগার করেন। বছরে তাঁর রোজগার ৬.৬৫ লক্ষ টাকা। এতে নিজের পকেটমানিও বাঁচানো যাচ্ছে, আবার বিলাসবহুল জীবনযাপনও করা যাচ্ছে। শুধু তাই নয় রোজের একটি কম্পানিও আছে। সেই কম্পানির জন্য টাকা দেন এই পুরুষরা।

কিন্তু এই অভিনব পদ্ধতিতে কীভাবে তাঁর পছন্দের পুরুষ বেছে নেন রোজ। এই ব্যাপারে রোজ জানান, “যখনই আমি একটি ডেটিং সাইটের মাধ্যমে ডেটের প্রস্তাব পাই, তখন সেই পুরুষ কী চান জানতে তাঁর প্রোফাইলটি ঘেঁটে দেখি। এরপর আমার সময়ের পরিবর্তে তারা কত টাকা দিতে রাজি সেটাও দেখে নিই।” সেই সময়ই রোজ জানিয়ে দেন, পেড ডেট হলেও কোনভাবেই স্পর্শ করা যাবে না তাকে। বড়জোর একটি আলিঙ্গন করতে পারেন। এর থেকে বেশি নৈব নৈব চ। এই শর্তগুলি পূরণ হলেই বেছে নেন নিজের ডেট পার্টনার।

এখন অবধি যাদের সঙ্গে ডেটে গিয়েছেন রোজ তাঁদের মধ্যে অধিকাংশেরই বয়স ৫০ এর আশেপাশে। প্রত্যেকেই বড় মাপের ব্যবসায়ী।