তুরিন: ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড, রিয়াল মাদ্রিদ কিংবদন্তি তিনি। এবার ইতালি জায়ান্ট জুভেন্তাসের কিংবদন্তি হওয়ার পথেও ধীরে ধীরে হাত পাকাচ্ছেন রোনাল্ডো। প্রথম মরশুমে তুরিনের ক্লাবটির হয়ে সিরি-‘এ’ খেতাব জিতে নিয়েছেন। সবরকম প্রতিযোগীতা মিলিয়ে ৪৩ ম্যাচে করেছিলেন ২৮টি গোল। আর চলতি বছর ইয়াতালি জায়ান্টদের হয়ে গোল স্কোরিং রেকর্ড উন্নত করার পাশাপাশি ব্যক্তিগত কিছু নজর গড়ার পথে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো।

শনিবার স্প্যালের বিরুদ্ধে জুভেন্তাসের জার্সি গায়ে কেরিয়ারের ১০০০তম ম্যাচ (ক্লাব এবং দেশ) খেলতে নেমেছিলেন পর্তুগিজ সুপারস্টার। আর সহস্রতম ম্যাচ রোনাল্ডো গোল করে স্মরনীয় রাখবেন না তা আবার হয় নাকি। গোল করলেন এবং সেইসঙ্গে জুভেন্তাসের জার্সি গায়ে প্রাক্তন আর্জেন্তাইন তারকা গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতা ও ইতালি তারকা ফ্যাবিও কুয়াগলিয়ারেল্লার বিরল নজির স্পর্শ করলেন ক্রিশ্চিয়ানো।

আরও পড়ুন: মেসির হ্যাটট্রিকে লা-লিগার শীর্ষে বার্সেলোনা

স্প্যালের বিরুদ্ধে গোল করে সিরি-‘এ’তে টানা ১১টি ম্যাচে গোল করার নজির গড়লেন পর্তুগিজ ফুটবলের পোস্টার বয়। সিরি-‘এ’র ইতিহাসে এমন নজির এর আগে কেবল ছিল বাতিস্তুতা (১৯৯৪) ও কুয়াগলিয়ারেল্লার (২০১৯) ঝুলিতেই। এদিন সেই রেকর্ড স্পর্শ করে আরও একটি ক্ষেত্রে নিজেকে এলিট ক্লাবে উন্নীত করলেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী। সেইসঙ্গে চলতি মরশুমে সিরি-‘এ’ ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের হয়ে ৩০ ম্যাচে ২৫ গোল হয়ে গেল রোনাল্ডোর।

আরও পড়ুন: এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা রবি কুমারের, রুপোয় সন্তুষ্ট বজরং

এদিন ম্যাচের ৩৯ মিনিটে কার্লোস কুয়াদ্রাতের অ্যাসিস্টে স্কোরশিটে নাম লেখান রোনাল্ডো। এটি আবার ছিল রোনাল্ডোর কেরিয়ারের ৭২৫তম গোল। ৬০ মিনিটে জুভেন্তাসের হয়ে ব্যবধান বাড়ান অ্যারন রামসে। ৬৯ মিনিটে ঘরের মাঠে স্প্যাল একটি গোল শোধ করলেও রোনাল্ডোর মাইলস্টোন ম্যাচে সমতায় ফিরতে পারেনি তারা। গোল্করে ম্যাচ জিতিয়ে একইসঙ্গে নজির ছুঁয়ে সহস্রতম ম্যাচ স্মরণীয় করে রাখেন পর্তুগিজ মহাতারকা।