কলকাতা: এটিএম কার্ডে পরিবর্তন আনা হয়েছে৷ আধুনিক হয়েছে ব্যাংকিং ব্যবস্থা৷ তারপরও রোধ করা যায়নি এটিএম জালিয়াতি৷ কলকাতায় এটিএম কাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে দিল্লির গ্রেটার কৈলাস থেকে গ্রেফতার করা হল এক রোমানিয়ানকে৷ গ্রেফতার করে কলকাতা পুলিশ৷ ধৃতের নাম সিলভিউ ফ্লোরিন স্পিরিদোন।

কিছুদিন আগেই ফের প্রকাশ্যে আসে এটিএম কাণ্ড৷ যাদবপুর থানা এলাকার কিছু ব্যাঙ্ক গ্রাহক দেখেন যে, তাঁদের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তোলে নেওয়া হচ্ছে৷ দিল্লির কোনও একটি এটিএম থেকে সেই টাকা তোলা হচ্ছে৷ এরপরই তারা থানায় ও ব্যাংকে অভিযোগ জানান৷ ক্রমশ বাড়তে থাকে প্রতারিতদের সংখ্যা৷ এক সময় অভিযোগের সংখ্যা পৌঁছে যায় ৭০ এ৷ অভিযোগ জমা পরেছে চারু মার্কেট, উল্টোডাঙা, কড়েয়া এবং নেতাজিনগর থানায়৷

পুলিশ সূত্রে খবর, তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে অপরাধীরা দিল্লিতে বসে জালিয়াতি করছে৷ কলকাতা পুলিশের একটি দল পৌঁছে যায় দিল্লিতে৷ সেখানে তারা সাদা পোশাকে নজরদারি করতে থাকেন৷ সোমবার সকালে গ্রেটার কৈলাসের একটি এটিএম-এর কাছে নজরদারি করছিল কলকাতা পুলিশের টিমটি৷ তখন ওই এটিএমের ভিতরে এক বিদেশী ঢুকে৷ পুলিশ মোবাইলে ছবি তোলার সময় এটিএম কাউন্টার থেকে বেরিয়ে যায়৷

পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে অটোয় উঠে চম্পট দেয় ওই ব্যক্তি৷ তখন পুলিশের গাড়িটি কিছুটা দূরে ছিল৷ তাই পুলিশও অটো নিয়ে তার পিছু পিছু ধাওয়া করে৷ কিন্তু কিছুদূর যাওয়ার পরে তাকে হারিয়ে ফেলে৷ পুলিশের চোখ এড়িয়ে একটি বাড়িতে ঢুকে লুকিয়ে পড়ে সে৷

আগেই সিসিটিভি ফুটেজ থেকে সিলভিউ নামে ওই ব্যক্তিকে চিহ্নিত করে পুলিশ৷ সেই ছবি নিয়ে পুলিশ ডোর টু ডোর তল্লাশি শুরু করে৷ বিশেষ করে যে এলাকায় অভিযুক্ত ব্যক্তি গা ঢাকা দিয়েছে৷ অবশেষে আসে সাফল্য৷ একটি বাড়ি থেকে হাতেনাতে ধরা হয় রোমানিয়ান বাসিন্দা সিলভিউ ফ্লোরিন স্পিরিদোনকে৷ সেখানে বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকত তারা৷ সিলভিউকে পাকড়াও করতে পারলেও পালিয়ে গিয়েছে তার সঙ্গীরা৷ জানা গিয়েছে তারা সংখ্যায় ২ জন ছিল৷ তাদের খোঁজ করছে পুলিশ৷

প্রসঙ্গত, কলকাতার পাশাপাশি দিল্লিতেও এটিএম প্রতারণা হয়েছে। শেষ ২৬ দিনে দিল্লিতে ২৩০টি এটিএম প্রতারণার অভিযোগ দায়ের হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে,ধৃত সিলভিউ ফ্লোরিন স্পিরিদোন এই নিয়ে তিন বার ভারতে প্রবেশ করেছে৷ প্রতিবারই টুরিস্ট ভিসা নিয়ে ভারতে ঢুকেছে৷ তার সঙ্গে আরও দুই জন ভারতে এসেছে বলে জানা গিয়েছে৷

দিল্লির গ্রেটার কৈলাসের ওই ভাড়া বাড়ি থেকে প্রচুর জিনিস বাজেয়াপ্ত হয়েছে৷ এর মধ্যে রয়েছে দামি জামাকাপড়, চশমা, জুতো, মোবাইল ও ল্যাপটপ৷ এছাড়া ফ্ল্যাট থেকে পুলিশ উদ্ধার করেছে স্কিমিং ডিভাইস।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

Tree-bute: রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও