ম্যাঞ্চেস্টার: বিশ্বকাপে প্রথম ৩ ম্যাচে ৩১৯ রান। পাকিস্তান ম্যাচের পর ডেভিড ওয়ার্নারকে টপকে টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানস্কোরার তিনি। ২টি ম্যাচে শতরান, একটিতে অর্ধশতরান। চলতি বিশ্বকাপে নিজের ব্যাটিংকে এক অন্য মাত্রায় তুলে ধরছেন রোহিত শর্মা। রবিবার ম্যাচের তাঁর ব্যাটিংয়ের ধারাবাহিকতায় মুগ্ধ সচিন তেন্ডুলকর প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন টিম ইন্ডিয়ার ডেপুটিকে।

বৃষ্টিবিঘ্নিত ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে পাকিস্তানকে ৮৯ রানে হারিয়ে বিশ্বকাপে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের বিরুদ্ধে ১০০ শতাংশ জয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছে ভারত। ডাকওয়ার্থ লুইস নিয়মে ম্যাচ জিতে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ফলাফল ৭-০ করেছে মেন ইন ব্লু’। ৮ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলে তিন নম্বরে ওঠার পথে ভারতীয় দলকে সবচেয়ে ভরসা জুগিয়েছে ‘হিটম্যান’ রোহিত শর্মার ১৪০ রানের অনবদ্য ইনিংস। প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ১১২, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে মূল্যবান অর্ধশরতরানের পর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ফের ধ্রুপদী শতরান। ১৪০ রানে মাথায় ভুল শট নির্বাচন করে আউট হওয়ার পর মাঠেই তাঁর অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন হতাশ রোহিত।

আরও পড়ুন: ছক্কায় ধোনিকে টপকে এক নম্বরে হিটম্যান

তবে ১১৩ বলে রোহিতের ১৪০ রানের ইনিংসে মাস্টার-ব্লাস্টারকে সবচেয়ে আশ্বস্ত করেছে দুরন্ত স্ট্রাইক রেটে রোহিতের ঝুঁকিহীন ব্যাটিং। রবিবার ম্যাচের পর এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে সচিন জানান, ‘ধারাবাহিকতা চূড়ান্ত। আমি খুবই খুশি হয়েছি দুর্দান্ত স্ট্রাইক রেট সত্ত্বেও রোহিতের ঝুঁকিহীন ব্যাটিংয়ে। রানিং বিটুইন দ্য উইকেটে দু’বার বিপদ ডেকে এনেছিলেন বটে, কিন্তু বাকি সময়টা তাঁর ব্যাটিংকে অন্য মাত্রায় নিয়ে গিয়েছেন রোহিত। যখনই ও ফ্রন্টফুটে শরীরের কাছাকাছি খেলতে শুরু করল, তখনই বুঝে গেছি আজ বিপক্ষ বোলারদের কপালে কষ্ট আছে।’

আরও পড়ুন: ‘মস্তিষ্কহীন’ অধিনায়ক, সরফরাজকে নজিরবিহীন আক্রমণ আখতারের

তবে সচিনের কথায়, আর কিছুক্ষণ ধৈর্য্য ধরলে ওয়ান ডে ক্রিকেটের চতুর্থ দ্বিশতরানটি পেয়ে যেতে পারতেন ভারতীয় ওপেনার। এপ্রসঙ্গে তাঁর আরও সংযোজন, ‘বিশ্বকাপে রোহিতের এই পারফরম্যান্সকে আমি তাঁর অতীতের যে কোনও দুরন্ত পারফরম্যান্সের সঙ্গে একই সারিতে রাখব। আর কিছুক্ষণ ধৈর্য্য ধরলে দ্বিশতরান বাঁধা ছিল।’ একইসঙ্গে কিংবদন্তির কথায়, ‘রোহিত একবার সেট হয়ে গেলে শর্ট বলেও ওকে পরাস্ত করা সম্ভব নয়। পাক বোলাররা এদিন রোহিতের সামনে অসহায় বোধ করছিল। কাট হোক কিংবা ফ্লিক, সত্যি বলতে রোহিতের হাতে সমস্তরকম শট মজুত রয়েছে।’

সবশেষে হিটম্যানকে এক সংক্ষিপ্ত বার্তায় ১০০টি শতরানের মালিক বলেন, ‘রোহিত তুমি তোমার কাজ করে যাও। কমেন্ট্রি বক্স থেকে তোমার ব্যাটিং উপভোগ করা অত্যন্ত আনন্দের।’