মাউন্ট মাউনগানুই: নিউজিল্যান্ডের মাটিতে নিউজিল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করার দিনে একাদশ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন বিরাট কোহলি। পরিবর্তে রবিবার পার্টটাইম অধিনায়ক রোহিত শর্মার নেতৃত্বেই মাঠে নেমেছিল টিম ইন্ডিয়া। সিরিজের অন্তিম ম্যাচে অধিনায়ক হিসেবে দলকে কাঙ্খিত জয় এনে দেওয়ার দিনে ব্যাটেও ঝড় তোলেন ‘হিটম্যান’ রোহিত।

এদিন ৪১ বলে ৬০ রান করে আহত ও অবসৃত হয়ে মাঠ ছাড়েন অধিনায়ক রোহিত। হিটম্যানের এদিনের ইনিংসটি ছিল তাঁর টি-২০ কেরিয়ারে ২৫তম অর্ধশতরানের ইনিংস। এর আগে টি-২০ কেরিয়ারে সর্বাধিক ৫০ বা তার বেশি রানের ইনিংস খেলার নিরিখে তালিকার শীর্ষে ছিলেন বিরাট কোহলি। টি-২০ ক্রিকেটে (আন্তর্জাতিক) তাঁর ৫০ বা তাঁর বেশি রানের ইনিংসের সংখ্যা ২৪টি। অর্থাৎ, টি-২০’তে সর্বাধিক ৫০ বা তার বেশি রানের ইনিংস খেলার নিরিখে রবিবার বিরাটকে টপকে গেলেন তাঁর ডেপুটি।

তালিকার তৃতীয় ও চতুর্থস্থানে রয়েছেন যথাক্রমে নিউজিল্যান্ডের মার্টিন গাপ্তিল ও আয়ারল্যান্ডের পল স্টার্লিং। দু’জনের নামের পাশে রয়েছে ১৭টি অর্ধশতরানের ইনিংস। ১৬টি অর্ধশতরান নিয়ে তালিকায় পঞ্চমস্থানে রয়েছেন অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। সবমিলিয়ে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাটে ভারত অধিনায়ক ও তাঁর ডেপুটির নিঃশব্দ র‍্যাট-রেস চলছেই। কোহলির অনুপস্থিতিতে অর্ধশতরানের নিরিখে তাঁকে শুধু ছাপিয়ে যাওয়াই নয়, এদিন অধিনায়কের সঙ্গে আন্তর্জাতিক টি-২০’তে সংগৃহীত রানের দিক থেকেও ব্যবধান কমিয়ে আনলেন রোহিত। টি-২০ ক্রিকেটে সংগৃহীত রানের নিরিখে কোহলি-রোহিতের মধ্যে ব্যবধান এখন মাত্র ২১ রানের।

রোহিত শর্মা-কেএল রাহুলের ব্যাট, পাশাপাশি স্পিডস্টার জসপ্রীত বুমরাহর দুরন্ত বোলিংয়ে ভর করে মাউন্ট মাউনগানুইয়ে রবিবার ৭ রানের দুর্ধর্ষ জয় ছিনিয়ে নেয় টিম ইন্ডিয়া। কিউয়িদের ঘরের মাঠে তাদের প্রথমবার কোনও টি-২০ সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করে টিম ইন্ডিয়া। শুধু তাই নয়, প্রথম কোনও দল হিসেবে ভারত এদিন ৫ ম্যাচের টি-২০ সিরিজে প্রতিপক্ষকে ক্লিনস্যুইপ করার নজির গড়ে।

সেইসঙ্গে টি-২০ ক্রিকেটে টানা জয়ের হিসেবে নিজেদেরই পুরনো রেকর্ড ভেঙে দেয় ‘মেন ইন ব্লু’। টানা ৭ ম্যাচ জয়ের পুরনো নজির ভেঙে এদিন টানা ৮ ম্যাচ জয়ের নজির গড়ে টিম ইন্ডিয়া।