ঢাকা: আসন্ন বর্ষায় ধসের মুখে পড়তে পারে বাংলাদেশে বসবাসকারী উদ্বাস্তু রোহিঙ্গারা৷ তাদের কোনও প্রত্যন্ত স্থানে স্থানান্তরিত করা উচিত বলে বৃহস্পতিবার জানালেন বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন৷ তিনি সাংবাদিকদের জানান, চলতি বছরে বেশি বৃষ্টিপাতের ফলে ধস নামতে পারে বলে খবর এসেছে৷ আর এই বর্ষা শুরু আগেই রোহিঙ্গাদের ভাসান চরে স্থানান্তরিত করার কাজ শুরু করা যেতে পারে, এড়ানো যেতে পারে ক্ষয়ক্ষতি৷

সূত্রের খবর, এই কাজে রাষ্ট্রসঙ্ঘ বাংলাদেশকে সাহায্য করার পরিকল্পনা করছে বলে জানা গিয়েছিল৷ বিদেশমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা জোর করে কাউকে ভাসানচরে পাঠাব না। তবে যারা যাবে তারা সেখানে অমাছ ধরতে পারবে, গরু পালন করে রোজগার করতে পারবে, যা তাদের অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সুবিধাজনক হবে।

ফাইল ছবি

প্রসঙ্গত, গত জানুয়ারি মাসেই রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। চিঠিটির বিষয়ে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন বিদেশমন্ত্রী প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। মার্কিন প্রেসিডেন্ট চিঠিতে যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনার সাফল্য কামনাও করেছিলেন৷

ডোনাল্ড ট্রাম্প লিখেছিলেন, মায়ানমার থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ার জন্য বাংলাদেশ সরকারের কাছে কৃতজ্ঞ আমেরিকা। বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক অগ্রগতি এবং অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও সমৃদ্ধির মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ যোগসূত্র রয়েছে।