লন্ডন: ইতিহাসের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে রজার ফেডেরার৷ এমন এক কৃতিত্ব যা, অর্জন করা মোটেও সহজ নয়৷ মঙ্গলবার উইম্বলডনের কোর্টে পা দিলেই ইতিহাসের পাতায় জায়গা করে নেবেন সুইস কিংবদন্তি৷

উইম্বলডন বরাবরের প্রিয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম ইভেন্ট ফেডেরারের৷ ওপেন যুগে টুর্নামেন্টের ইতিহাসে সব থেকে সফল মেনস সিঙ্গলস তারকা তিনিই৷ সর্বাধিক ৮ বার উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন রজার৷ ফাইনালে উঠেছেন আরও ৩ বার৷ তবে মঙ্গলবার টুর্নামেন্টের প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ খেলতে এসডব্লু-১৯’এ পা দেওয়া মাত্র বিরল এক নজির গড়বেন তিনি৷ ইতিমধ্যেই উইম্বলডনে দু’দশক কাটিয়ে ফেলেছেন ফেডেক্স৷ চলতি টুর্নামেন্টটি হতে চলেছে তাঁর কেরিয়ারের ২১তম উইম্বলডন৷ তাও আবার একটানা৷ অর্থাৎ দু’দশক পার করে উইম্বলডনে তৃতীয় দশক শুরুর অপেক্ষায় রয়েছেন ফেডেরার৷

১৯৯৯ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে প্রথমবার উইম্বলডনের মূলপর্বে অংশ নেন ফেডেরার৷ সেবার প্রথম রাউন্ডেই পাঁচ সেটের লড়াইয়ে হেরে যান জিরি নোভাকের কাছে৷ ২০০০ এবং ২০০২ সালেও প্রথম রাউন্ডেই শেষ হয় ফেডেরারের উইম্বলডন অভিযান৷ মাঝে ২০০১ সালে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিলেন তিনি৷

২০০৩ সালে মার্ক ফিলিপাউসিসকে হারিয়ে প্রথমবার উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন হন ফেডেরার৷ সেটি ছিল তাঁর কেরিয়ারের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম ট্রফি৷ পরের বছর উইম্বলডন ছাড়াও অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের চ্যাম্পিয়ন হন রজার৷ তবে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল উইম্বলডনের প্রথম ট্রফি জেতার ঠিক আগের বছরে প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নিয়েছিলেন ফেডেরার৷ অর্থাৎ ২০০২ সালের ফার্স্ট রাউন্ডে বিদায় নেওয়া রজার পরের বছর দ্য চ্যাম্পিয়নশিপের খেতাব ঘরে তোলেন৷ অন্য গ্র্যান্ড স্ল্যামগুলিতে নিজের প্রথম ট্রফি জেতার আগের বছর অন্তত চতুর্থ রাউন্ড পর্যন্ত পৌঁছেছিলেন তিনি৷

২০০৩ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত টানা পাঁচ বার উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন হন ফেডেরার৷ ২০০৮’এর ফাইনালে হেরে গেলেও ২০০৯ সালে আবার উইম্বলডনে বিজয় পতাকা ওড়ান সুইস তারকা৷ ২০১২ ও ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মাঝে ২০১৪ ও ২-১৫ সালে পর পর দু’বার রানার্স হয়ে অভিযান শেষ করেন তিনি৷

গত বছর কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে যাওয়া ৩৭ বছর বয়সি ফেডেক্স এবার অভিযান শুরু করবেন দক্ষিণ আফ্রিকার লয়েড হ্যারিসের বিরুদ্ধে৷ দ্বিতীয় বাছাই হিসাবে কোর্টে নামতে চলা রজারের সামনে কেরিয়ারের নবম উইম্বলডন জেতার হাতছানি রয়েছে৷ তবে এক্ষেত্রেও তাঁকে টপকাতে হবে রাফায়েল নাদাল ও নোভাক জকোভিচের বাধা৷