প্যারিস: টেনিস অনুরাগীদের প্রত্যাশাপূরণ করে ফরাসি ওপেনের সেমিফাইনালে মুখোমুখি রাফায়েল নাদাল ও রজার ফেডেরার। মঙ্গলবার শেষ চারে ওঠার লড়াইয়ে ১১ বারের চ্যাম্পিয়ন নাদাল যখন স্ট্রেট সেটে সহজেই হারালেন জাপানের প্রতিদ্বন্দ্বী নিশিকোরিকে, তখন ২০১৫ চ্যাম্পিয়ন স্বদেশী স্ট্যান ওয়ারিঙ্কাকে হারাতে অনেকটাই বেগ পেলেন ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক ফেডেরার।

বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির কারণে এদিন উভয় কোয়ার্টার ফাইনালই বিঘ্নিত হয়। বৃষ্টিবিঘ্নিত কোয়ার্টারে প্রথম সেটেই এদিন ফেডেরারকে কড়া চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন স্বদেশি ওয়ারিঙ্কা। টাইব্রেকারে ৭-৬(৭-৪) ব্যবধানে প্রথম সেটে উতরে গেলেও দ্বিতীয় সেটে গিয়ে ওয়ারিঙ্কার কাছে হার মানেন ফেডেক্স। ৪-৬ ব্যবধানে টুর্নামেন্টের প্রথম সেট খোয়াতে হয় সুইশ কিংবদন্তিকে। প্রত্যাশামতোই তৃতীয় সেটেও কড়া প্রতিদ্বন্দ্বীতার সাক্ষী থাকেন গ্যালারিতে উপস্থিত দর্শকেরা। তৃতীয় সেটও গড়ায় টাইব্রেকারে। তবে টাই ভাঙার খেলায় এক্ষেত্রে ফের শেষ হাসি হাসেন ফেডেরার।

৭-৬(৭-৫) ব্যবধানে ফেডেরার তৃতীয় সেট জিতে নেওয়ায় চতুর্থ সেট ওয়ারিঙ্কার সামনে হয়ে দাঁড়ায় টিকে থাকার লড়াই। কিন্তু দ্বিতীয়বার স্বদেশী প্রতিদ্বন্দ্বীকে আর সুযোগ দেওয়ার পক্ষপাতী ছিলেন না বছর সাঁইত্রিশের ফেডেরার। ৬-৪ ব্যবধানে চতুর্থ সেট জিতে চারবছর পর ফরাসি ওপেনে ফিরে শেষ চার নিশ্চিত করেন তিনি। সাত বছর পর ফরাসি ওপেনের শেষ চারে পৌঁছলেন সুইস তারকা। ৩ ঘন্টা ১৭ মিনিটের দীর্ঘ লড়াইয়ের পর ফেডেরারের অভিজ্ঞতার কাছে বশ্যতা স্বীকার করেন ওয়ারিঙ্কা। ম্যাচ জয়ের পর তৃতীয় বাছাই ফেডেরার জানান, ‘এই টুর্নামেন্ট চ্যাম্পিয়ন হলে তবেই স্বপ্নপূরণ হবে।’

অপর কোয়ার্টার ফাইনালে নিশিকোরির বিরুদ্ধে যদিও একপেশে জয় ছিনিয়ে নেন ক্লে-কোর্টের রাজা রাফায়েল নাদাল। দু’ঘণ্টারও কম সময়ে জাপানি প্রতিদ্বন্দ্বীকে স্ট্রেট সেটে উড়িয়ে রেকর্ড ১২ বার টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেন স্প্যানিশ মায়েস্ত্রো। এর আগে ১১ বার সেমিতে পৌঁছে কখনও ট্রফি হাতছাড়া করেননি নাদাল। কোয়ার্টারের লড়াইয়ে এদিন নাদালের পক্ষে ম্যাচের ফল ৬-১, ৬-১, ৬-৩। দ্বিতীয় বাছাই নাদালের সামনে এদিন কার্যত খড়কুটোর মত উড়ে যান সপ্তম বাছাই নিশিকোরি।

ম্যাচ জয়ের পর নাদাল জানান, ‘টুর্নামেন্টে এখনও অবধি ইতিবাচক টেনিস উপহার দিয়েছি। সেমিফাইনালে সামনে ফেডেরার মানে একটা আলাদা বিষয়। কেরিয়ারের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সময়গুলো কোর্টে ওর সঙ্গে বা ওর বিরুদ্ধে কাটিয়েছি।’ এর আগে ৩৮ বারের মুখোমুখি সাক্ষাতে নাদাল ২৩-১৫ ব্যবধানে অনেকটাই এগিয়ে থাকলেও শেষ পাঁচবারের সাক্ষাতে সবক’টিতেই বাজি মেরেছেন ফেডেরার।