প্যারিস: চলতি ফরাসি ওপেনে জয়ের ধারা অব্যহত রাখলেন রজার ফেডেরার৷ প্রথম তিন রাউন্ডের মতো তৃতীয় বাছাই সুইস তারকা অনায়াসে জয় তুলে নিলেন প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালেও৷ রবিবাসরীয় রোলাঁ গারোয় শেষ ষোলের লড়াইয়ে আর্জেন্তিনার লিওনার্দো মায়েরকে স্ট্রেট সেটে পরাজিত করেন ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী তারকা৷

টুর্নামেন্টে এখনও পর্যন্ত একটিও সেট না খোওয়ানো ৩৭ বছরের ফেডেরার ১ ঘণ্টা ৪২ মিনিটেই পরাস্ত করেন মায়েরকে৷ ৬-২, ৬-৩, ৬-৩ সেটে জয় তুলে নেওয়ার পথে প্রতিপক্ষকে একটিও ব্রেক পয়েন্ট উপহার দেননি ফেডেক্স৷

আরও পড়ুন: প্রবীণতম হিসেবে ফরাসি ওপেনের চতুর্থ রাউন্ডে ফেডেরার, গফিন বাধা টপকালেন নাদাল

গত ২৮ বছরে সব থেকে বেশি বয়সে ফরাসি ওপেন তথা কোনও মেজর টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার নজির গড়েন রজার৷ এক্ষেত্রে তিনি ভেঙে দেন ১৯৯১ সালের যুক্তরাষ্ট্র ওপেনে জিমি কোনর্সের শেষ আটে পৌঁছনোর রেকর্ড৷ এই নিয়ে মোট ১২বার রোলাঁ গারোর কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নিলেন ফেডেরার৷ এবার মেনস সিঙ্গলসে তিনিই প্রথম তারকা, যিনি প্রি-কোয়ার্টারের বাধা টপকে গেলেন৷

চতুর্থ রাউন্ডে জয়ের পর ফেডেরার বলেন, ‘এটা দারুণ বিষয় যে দীর্ঘদিন পর প্যারিযসে বেশ কিছুদিন সময় কাটাচ্ছি৷ আমি মানসিকভাবে প্রস্তুত ছিলাম সব থেকে খারাপ পারফরম্যান্সের জন্য৷ নিজেকে বুঝিয়ে ছিলাম যে, হয়ত প্রথম রাউন্ডেই স্ট্রেট সেটে হেরে যেতে পারি৷ তবে যে রকম খেলছি, তাতে আমি অত্যন্ত খুশি৷ কোয়ার্টারেও আমাকে এরকমই দারুণ টেনিস খেলতে হবে৷’

আরও পড়ুন: সেরেনা-ওসাকার বিদায়, ফরাসি ওপেনে একইদিনে জোড়া নক্ষত্রপতন

কোয়ার্টার ফাইনালে হয় স্বাদেশীয় ওয়ারিঙ্কা না হলে গ্রীক তরুণ সিসিপাসের মুখোমুখি হতে হবে ফেডেরারকে৷ ২০১৫ সালে শেষবার ফরাসি ওপেন থেকে রজার বিদায় নিয়েছিলেন ওয়ারিঙ্কার কাছে হেরে৷ সিসিপাস ফেডেরারকে ছিটকে দিয়েছিলেন গত অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের প্রি-কোয়ার্টার থেকে৷