স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: সুপারভাইজার নিয়োগকে কেন্দ্র করে গ্রাম পঞ্চায়েত ও বিডিওর বিবাদের জেরে বন্ধ মালদহের চাঁচোল ১ নম্বর ব্লকের ভগবানপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের রাস্তার কাজ। যার জেরে দীর্ঘদিনের সমস্যায় আরও জর্জরিত হয়ে যাচ্ছে এলাকাবাসী।

জেলার উত্তর প্রান্তে বিহার ও উত্তর দিনাজপুর সীমান্ত সংলগ্ন চাঁচোল ১ নম্বর ব্লকের ভগবানপুর গ্রাম পঞ্চায়েত। দীর্ঘদিন ধরে এই গ্রাম পঞ্চায়েত কংগ্রেস ও সিপিএম এর দখলে ছিল। সম্প্রতি গ্রাম পঞ্চায়েতের ক্ষমতায় আসে তৃণমূল কংগ্রেস।

ভগবানপুর থেকে প্রায় তুলসীডাঙ্গা পর্যন্ত প্রায় ১৫ কিলোমিটার রাস্তা বিগত ১৫ বছর ধরে বেহাল অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এই রাস্তাটি দিয়ে প্রতিদিন ১০ থেকে ১২ হাজার মানুষ যাতায়াত করে। উত্তর দিনাজপুর ও বিহারের সংযোগকারী এই মূল রাস্তা। এই রাস্তার মাধ্যমেই চাঁচোল এর সাথে উত্তর দিনাজপুর ও বিহারের যোগাযোগ রয়েছে।

গ্রামবাসীদের দাবি এই রাস্তাটি সারানো হোক। নির্বাচনের আগে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল তারা যদি ক্ষমতায় আসে তাহলে রাস্তাটি সারিয়ে দেবে।কিন্তু সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে সিপিএম পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েতের নিয়োগ হওয়া সুপারভাইজারদের নিয়ে।

বর্তমান তৃণমূল বোর্ড চায় না এই সুপারভাইজারদের নিয়ন্ত্রণে এনআরইজিএসের কাজ হোক। তাদের দাবি এরা বিভিন্ন দুর্নীতিতে যুক্ত। চাঁচোল এর বিডিওর কাছে তারা এদের সরিয়ে দিয়ে নতুন সুপারভাইজার নিয়োগের দাবি জানিয়েছেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত নতুন সুপারভাইজার নিয়োগ হয়নি। ফলে শুরু করা যাচ্ছে না এই কাজ৷

গ্রাম পঞ্চায়েত ও বিডিওর এই টানাপোড়েনে পড়ে ভুক্তভোগী হচ্ছে সাধারণ মানুষ। গ্রামবাসীদের দাবি অবিলম্বে যাতে এই রাস্তাটি সারানো হয়। মালদহ জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌর চন্দ্র মন্ডল বলেন, দ্রুত এই সমস্যার সমাধান করা হবে। উন্নয়নের কাজ আটকে থাকবে না।