জলপাইগুড়ি: জলপাইগুড়ি শহরের প্রধান রাস্তায় তৈরি হয়েছে মারণ ফাঁদ। রাস্তার মাঝখানে তৈরি হয়েছে একটি বিশালাকার গর্ত। শহরের কদমতলা মোড়ে এই মারণ ফাঁদের কারণে নিত্যদিন দুর্ঘটনা ঘটছে।

কিন্তু তা সত্ত্বেও এই গর্তের ওপর দিয়েই প্রতিদিন যাতায়াত করতে হচ্ছে জলপাইগুড়ি শহরের লক্ষাধিক মানুষকে। স্থানীয় মানুষদের অভিযোগ, এই গর্তের জন্য নিত‍্যদিনই ঘটছে ছোট বড় দুর্ঘটনা। গর্তে পড়ে গিয়ে ইতিমধ্যেই অনেকের হাত পা ভেঙেছে। তা সত্ত্বেও নীরব রয়েছে জলপাইগুড়ি পুর প্রশাসন।

গর্ত ভরাটের কোনও উদ্যোগই নেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ। এর প্রতিবাদে শনিবার দুপুরে বাঁশ দিয়ে ওই রাস্তা আটকে দিয়েছেন এলাকার বাসিন্দারা। অভিযোগ, শহরের প্রাণ কেন্দ্র বলে পরিচিত কদমতলা মোড়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই তৈরি হয়েছে এই গর্ত। এর ফলে এই রাস্তা দিয়ে মোটরবাইক বা সাইকেল নিয়ে যাতায়াত করতে গিয়ে মাঝে মধ্যেই দুর্ঘটনায় পড়ছেন সাধারণ মানুষ। রীতিমত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলতে হচ্ছে সকলকে।

বিশেষ করে রাতের অন্ধকারে বিপদের আশঙ্কা বেশি থাকে। রাতে অনেক সময় গর্তটি দেখা যায় না। ফলে যখন তখন পড়ে গিয়ে হাত পা ভাঙার আশঙ্কা থাকে। এলাকার ব্যবসায়ীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ইতিমধ্যেই এই গর্তে পড়ে গিয়ে কয়েজনের হাত পা ভেঙেছে। তাই শীঘ্রই এই গর্ত বন্ধ করার জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করছেন এলাকার ব‍্যবসায়ী থেকে শুরু করে সাধারণ পথচারীরাও। জলপাইগুড়ি পুরসভার উপপুরপ্রধান পাপিয়া পাল বলেন, খুব শীঘ্রই গর্তটি মেরামত করা হবে।