নিউজ ডেস্ক : চিকিত্সার জন্য এই মুহূর্তে নিউ ইয়র্কে আছেন বলিউড অভিনেতা ঋষি কাপুর। দেশে চলছে গণতন্ত্রের উত্সব। কিন্তু দেশে নেই তিনি। তা নিয়ে আক্ষেপের সুর বর্ষীয়ান অভিনেতার গলায়। রবিবার সন্ধ্যেয় টুইট করে সে কথাই জানালেন তিনি।

পাশাপাশি, আমেরিকায় বসে ভোট দেওয়া যায় কিনা! সেই প্রশ্ন ও তুলে ধরেন ঋষি। এ বিষয়ে জানতে সটান ফোন করে বসেন আমেরিকারর ভারতীয় দূতাবাসে। তাঁকে জানানো হয়, এমন সুবিধা নেই প্রবাসী ভারতীয়দের জন্য। এমন বহু ভারতীয় রয়েছেন, নানা কারণে যারা এই সময় দেশের বাইরে। গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগে বঞ্চিত হচ্ছেন তাঁরা। নিজের পাশাপাশি, তাঁদের হয়ে এ প্রশ্নও রাখেন ঋষি কাপুর।

দেশে না থাকলেও, দেশের হালহকিকত নিয়ে নিয়ম করে টুইট করেন ঋষি। মাঝেমধ্যে বিতর্কে জড়িয়ে পড়তে দেখা যায় তাঁকে। তবে এদিন তাঁর ভক্তদের কাছে তিনি বার্তা দেন স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিতে।

গত বছর ‘মুলক’এর অভিনেতা জানান, চিকিত্সার জন্য আমেরিকায় যাচ্ছেন তিনি। ভক্তদের উদ্দেশে ঋষি বলেন, অযথা গুজব ছড়াবেন না। বলিউডে প্রায় ৪৫ বছর হয়ে গেল। কয়েক দিনের জন্য বিশ্রাম নিচ্ছি। শীঘ্রই দেখা হবে। উল্লেখ্য, নিউ ইয়র্কে ঋষির সঙ্গে রয়েছেন তাঁর স্ত্রী নীতু কাপুরও।