রাঁচি: অবসর কাটিয়ে তিনি নিজে কবে বাইশ গজে ফিরবেন, বৃহস্পতিবার নয়া প্রেসিডেন্ট ও অধিনায়কের আলোচনাতেও ছেদ পড়েনি সেই জল্পনাতে। কিন্তু আগামীর রোল মডেল হিসেবে মহেন্দ্র সিং ধোনির প্রাসঙ্গিকতা কোনও অবস্থাতেই ম্লান হবার নয়। তাইতো সুযোগ পেলেই তরুণ ক্রিকেটাররা ছুটে যান তাঁর কাছে টিপস নিতে।

সম্প্রতি সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটের ক্রিকেটে ঋষভ পন্তের পারফরম্যান্স নিয়ে চলছে বিস্তর কাটাছেঁড়া। তাই বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজ শুরু হওয়ার আগে হঠাতই রাঁচিতে ধোনির বাসভবনে পৌঁছে তরুণ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান।

সিনিয়রের প্রতি পন্তের অনুরাগের কথা দেশের ক্রিকেট অনুরাগীদের অজানা নয়। এর আগেও জাতীয় দলে ধোনির জুতোয় পা গলানোর আগে বিভিন্ন সময় বিশ্বজয়ী অধিনায়কের থেকে টিপস নিতে দেখা গিয়েছে তরুণ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানকে। আর বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সিরিজ শুরুর ঠিক আগে, যখন ব্যাট হাতে তাঁর পারফরম্যান্স আতস কাঁচের নীচে তখন সটান মাহির বাসভবনে পন্তের উপস্থিতি যথেষ্ট অর্থপূর্ণ।

শুক্রবার সকালে সোশ্যাল মিডিয়ায় সিনিয়রের সঙ্গে তাঁর রাঁচির বাসভবনে ছবি পোস্ট করে পন্ত লেখেন, ‘গুড ভাইবস ওনলি।’ ধোনির সংস্পর্শে যে কোনও তরুণ ক্রিকেটার সবসময় গুড ভাইবস পেয়ে থাকবেন এবিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সিরিজ শুরুর প্রাক্কালে ধোনি-পন্তের একান্ত আলাপচারিতা দেখে নেটিজেনরা বলছেন ফর্মে ফিরতেই মাহির দ্বারস্থ পন্ত। সোশ্যাল মিডিয়ায় পন্তের পোস্ট করা ছবিতে ধোনি-পন্ত ছাড়াও দেখা মিলেছে ধোনির একটি পোষ্য সারমেয়কে।

উল্লেখ্য, রাঁচিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ভারতের তৃতীয় টেস্ট জয়ের দিন দলের ড্রেসিংরুমে সারপ্রাইজ ভিসিট করেন মাহি। যদিও তাঁর কেরিয়ারের ভবিষ্যত নিয়েও অনুরাগীদের ধোঁয়াশাতেই রাখেন তিনি। বৃহস্পতিবারও ধোনিকে ছাড়াই বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দল ঘোষণা করেছেন নির্বাচকরা। যেখানে পন্তের পাশাপাশি দ্বিতীয় উইকেটরক্ষক হিসেবে দলে জায়গা করে নিয়েছেন সদ্য বিজয় হাজারে ট্রফিতে দ্বিশতরানকারী সঞ্জু স্যামসন। নির্বাচক কমিটির প্রধান এমএসকে প্রসাদের কথায় সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটে উইকেটের পিছনে তরুণ মুখের উপরেই আস্থা রাখতে চান তাঁরা, পন্ত যার অন্যতম।

বোর্ডের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর ভারতীয় দলে ধোনির ভবিষ্যত স্পষ্ট করতে সৌরভ যে বার্তা দিয়েছিলেন এদিন দল নির্বাচনে নির্বাচক প্রধানের বক্তব্য তাতে টুইস্ট যোগ করে। প্রসাদের কথায়, ‘বিশ্বকাপের পর থেকেই আমরা তারুণ্য নীতিতে জোর দিয়েছি। এ ব্যাপারে ধোনির সঙ্গেও আমাদের কথা হয়েছে। ধোনিও আমাদের এই নীতিকে সমর্থন জানিয়েছেন।’

মনে করা হচ্ছে আগামী জানুয়ারিতে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সিরিজে ভারতীয় দলে দেখা যেতে পারে মাহিকে। তবে ফিটনেস ধরে রাখতে ঝাড়খন্ডের অনুর্ধ্ব-২৩ দলের সঙ্গে খুব শীঘ্রই প্রস্তুতিতে নামবেন মাহি।