রাজকোট: মুম্বইয়ে ব্যাট করার সময় হেলমেটে বল লাগায় ফিল্ডিং করতে নামেননি টিম ইন্ডিয়ার তরুণ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্ত৷ তাঁর কনকাশন পরিবর্ত হিসেবে মণীশ পান্ডে ফিল্ডিং করতে নেমেছিলেন ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে৷ গুরুতর চোট না পেলেও এখনও ধাক্কা সামলে উঠতে না পারায় অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ান ডে থেকে ছিটকে গেলেন পন্ত৷

আরও পড়ুন: বিচে লেপার্ড বিকিনিতে নাতাশা, খালি গায়ে পোজ দিলেন হার্দিক

ওয়াংখেড়েয় ভারতীয় ইনিংসের ৪৪তম ওভারে প্যাট কামিন্সের বাউন্ডার ব্যাটের কানায় লাগার পর গিয়ে আঘাত করে পন্তের হেলমেটে৷ বলটি মাটিতে পড়াই আগেই টার্নার তালুবন্দি করায় আউট হয়ে মাঠ ছাড়তে হয় ঋষভকে৷ ঋষভ ফিল্ডিং করতে মাঠে না নামায় উইকেটকিপিংয়ের দায়িত্ব পালণ করেন লোকেশ রাহুল৷

আরও পড়ুন: ভালভের্দেকে সরিয়ে চমক বার্সার, নয়া কোচের অধীনে অনুশীলন মেসিদের

পন্তকে মাঠ থেকে সোজা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় পরীক্ষার জন্য৷ বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের নজরদারিতে রখা হয় সারা রাত৷বোর্ডের তরফে বিজ্ঞপ্তি মারফৎ জানানো হয় যে, পন্তকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে এবং প্রোটোকল অনুযায়ী বেঙ্গালুরুর ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে রিহ্যাবের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷ সেকারণেই দলের সঙ্গে রাজকোটে উড়ে যাননি পন্ত৷ তিনি সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ান ডে ম্যাচে মাঠে নামতে পারবেন না৷ তবে তৃতীয় ম্যাচ খেলতে পারবেন কি না, তা ঠিক করা হবে রিহ্যাবে তিনি কেমন সাড়া দেন, তা দেখার পরেই৷

আরও পড়ুন: ব্যাট হাতে ভারতের ত্রাতা অমরনাথ, এল ছবির নতুন লুক

আপাতত পন্তের কোনও পরিবর্ত ঘোষণা করেননি জাতীয় নির্বাচকরা৷ তাই সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন মাঠে ভারতের হয়ে আরও একবার উইকেটকিপিং করতে নামবেন লোকেশ রাহুল৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।