নয়াদিল্লি: কাশ্মীরি ছাত্রদের জিভ কেটে নিলেই তিন লক্ষ টাকা নগদ দেওয়া হবে। এমনই নিদান দিলেন শ্রী রাম সেনার কার্যকরি সভাপতি। বৃহস্পতিবার কর্ণাটকে একথা বলেছেন তিনি।

সিদ্দালিঙ্গ স্বামী নামে ওই নেতা বলেন, যে বা যারা এই কাজ করতে পারবেন, তাদের জন্য তিন লক্ষ টাকা আর্থিক পুরস্কারের কথাও ঘোষণা করেছেন শ্রী রাম সেনার কার্যকরি সভাপতি। তাঁর এই মন্তব্য নিয়ে ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় শুরু হয়ে গিয়েছে। উস্কানিমূলক মন্তব্য করায় তাকে গ্রেফতারির দাবিও তুলেছেন নেটিজেনদের একাংশ।

ছত্রপতি শিবাজির ৩৯৩ জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এক জনসভার আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানেই পাকিস্তান মুরদাবাদের স্লোগান ওঠে। সেই জনসভা থেকেই এমন মন্তব্য করেন সিদ্দালিঙ্গ স্বামী।

সম্প্রতি, কর্নাটকের হুব্বলিয়ের এক কলেজে তিন কাশ্মীরি পড়ুয়া পাকিস্তানের সমর্থনে স্লোগান দিয়েছিল। তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ আনা হয়েছে। তাদের উদ্দেশ্যেই এই বার্তা দিয়েছেন সিদ্দালিঙ্গ স্বামী।

জনসভা থেকে শ্রী রাম সেনার কার্যকরি সভাপতি বলেন, ‘যে তিন ছাত্র পাকিস্তানের স্বপক্ষে স্লোগান দিয়েছেন, তাদের জিভ ছিঁড়ে আনতে পারলে তিন লক্ষ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে।’ পাশাপাশি কংগ্রেস নেতা সিএম ইব্রাহিমের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ আনার দাবি জানিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালে মেঙ্গালুরুর এক পাবে হামলায় এই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা প্রমোদ মুত্থালিকের নাম জড়িয়েছিল। এই ঘটনার পর বহু মহিলা সংগঠন তার বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।