দিঘা: করোনা আবহে এখনই দিঘার হোটেল খোলা যাবে না। বাইরে থেকে আসা পর্যটকদের কারণে দিঘায় ছড়িয়ে পড়তে পারে করোনাভাইরাস। এমনই আশঙ্কায় দিঘার হোটেলগুলি আপাতত বন্ধ রাখারই দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এমনকী দিঘার একাধিক হোটেলমালিককে গিয়ে এব্যাপারে তাঁদের ক্ষোভের কথাও জানিয়ে এসেছেন এলাকাবাসী।

নোভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ক্রমেই ছড়িয়ে পড়ছে রাজ্যজুড়ে। ক্রমেই তার জেরে উদ্বে বাড়ছে রাজ্য প্রশাসনের। প্রতিদিন লাফিয়ে-লফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।

শুক্রবার রাজ্য সরকারের বুলেটিন অনুযায়ী, রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১০,২৪৪। করোনায় বাংলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৫১।

এই পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার থেকেই দিঘার রাস্তার ধারের হোটেলগুলি খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। তবে হোটেলগুলিতে সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রশাসনের তরফে। কম সংখ্যাক কর্মী নিয়ে কাজ চালাতে বলা হয়েছে হোটেলগুলিকে। তবে এখনই দিঘার হোটেলগুলি চালু হোক তা চান না এলাকাবাসী।

নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ায় দিঘার বেশ কিছু হোটেলে পর্যটকরা ভিড় করেছেন। সেই সব হোটেলে গিয়ে পর্যটকদের চলে যাওয়ার জন্য চাপ দেন দিঘার স্থানীয় মহিলারা।

পর্যটকদের হোটেল থেকে বের করে দেওয়ারও দাবি জানিয়ে হোটেলে বিক্ষোভ শুরু করেন তাঁরা।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ