কলকাতাঃ  গোটা দেশের পাশাপাশি বাংলাতেও সাড়ম্বরে পালিত হবে পালিত হবে প্রজাতন্ত্র দিবস। সেজে উঠেছে রেড রোড। সকাল ১০টায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকার। উপস্থিত থাকবেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পতাকা উত্তোলনের সময় হেলিকপ্টার থেকে পুষ্পবৃষ্টি হবে।

রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে থাকবে একটি ট্যাবলো। যার থিম হল, সেভ ওয়াটার, সেফ লাইফ অর্থাৎ জল বাঁচান, প্রাণ বাঁচান। আর এই থিমের উপর ভিত্তি করেই রাজধানীতে প্যারেডে অংশগ্রহণ করার জন্য ট্যাবলো পাঠিয়েছিল রাজ্য সরকার। কিন্তু সেই ট্যাবলো অনুমোদন পায়নি। যা নিয়ে কার্যত সংঘাতের রাস্তায় হাঁটে মমতা সরকার এবং কেন্দ্রের মোদী সরকার। যদিও এই পরিস্থিতিতে কলকাতার প্যারেডে সেই ট্যাবলো শোভা পাবে। এমনটাই সিদ্ধান্ত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

রেড রোডে প্যারেডে থাকবে কলকাতা পুলিশ, রাজ্য পুলিশ, সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী এবং ভারতীয় বিমানবাহিনী। এছাড়াও থাকবে পুরুলিয়ার ছৌ, সুন্দরবনের বনবিবি পালা এবং পাহাড়ের একাধিক শিল্পীরা। প্রায় ৫০ মিনিট ধরে চলবে এই বর্নাঢ্য অনুষ্ঠান। রেড রোডের দু’ধারে ২৫ হাজার মানুষের বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বন্ধ রাখা হয়েছে রেড রোড এবং তার সংলগ্ন রাস্তা।

অনুষ্ঠান চলাকালীন যাতে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্যে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। গোটা রেড রোড চত্বরে ১০টি বাঙ্কার তৈরি করা হয়েছে। ভিড়ের মধ্যে নজরদারি চালানোর জন্য ১০টি ওয়াচ টাওয়ার বানানো হয়েছে। শহরের মেট্রো স্টেশন, মহাকরণ, নবান্নের মতো গুরুত্বপূর্ণ একাধিক সরকারি দফতরের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। এছাড়াও সমস্ত ধর্মীয় স্থানের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে।

পাশাপাশি কলকাতা বিমানবন্দর, শিয়ালদহ, হাওড়া রেল স্টেশনের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। পাশাপাশি ২৬ জানুয়ারির আগে থেকেই শহরে ঢোকা ও বের হওয়ার পথে নাকা চেকিং করা হচ্ছে। রেড রোডের কুচকাওয়াজে ২০ জন ডিসির নেতৃত্বে প্রায় চার হাজার পুলিস রাস্তায় নামছেন বলে জানা গিয়েছে।