মুম্বই: দেশজুড়ে যেভাবে করোনা মহামারীর আকার ধারণ করছে তারই প্রেক্ষিতে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ বেশ কিছু ঘোষণা করল সোমবার। যার মধ্যে রয়েছে প্রতিদিন এক লক্ষ মাস্ক উৎপাদন করা, বিনামূল্যে তেল দেওয়া হবে জরুরী কালীন করোনা রোগী বহনকারী গাড়িকে এবং বিভিন্ন শহরে বিনামূল্যে খাদ্য সরবরাহ করা হবে তাদের জন্য যারা এই মহামারিতে ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত।

পড়ুন আরও- করোনা পরিস্থিতিতে আপাতত বন্ধ কলকাতার ‘শাহিনবাগের’ পার্ক সার্কাসের আন্দোলন

এছাড়া দেশের প্রথম করোনা আক্রান্তদের জন্য হাসপাতাল তৈরিতে উদ্যোগী হল এই সংস্থা।

পড়ুন আরও- কোয়ারেন্টাইন করেই ৭০ বছর আগে রক্ষা পেয়েছিল ভুটান

ওই বিবৃতিতে সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তাদের সিএসআর কাজের জন্য যে হাসপাতালটি চালানো হয় মুম্বইতে সেটিকে ১০০টি শয্যাবিশিষ্ট বিশিষ্ট হাসপাতাল করা হচ্ছে যেখানে করোনা পজেটিভ রোগীদের রাখা যাবে।

তাছাড়া এই কোম্পানির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে এই সংকটের সময় কাজ বন্ধ থাকলেও অস্থায়ী কর্মীদের বেতন দেওয়া হবে।

রিলায়েন্স এর পক্ষ থেকে বিনামূল্যে তেল দেওয়া হবে সেইসব জরুরী পরিষেবাকারি‌ গাড়িগুলিকে ‌ যেগুলি করোনা রোগীদের আনা নেওয়া করবে। অন্যদিকে রিলায়েন্স ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন শহরে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।