নয়াদিল্লি: গত বছর থেকে একাধিক নেটওয়ার্ক কোম্পানি দাম বাড়িয়েছিল নিজেদের প্ল্যানের। প্রথম পদক্ষেপ নিয়েছিল জিও। পাশাপাশি বাকি নেটওয়ার্ক কোম্পানিগুলি নাম লিখিয়েছিল সেই দৌড়ে।

যদিও সব নেটওয়ার্ক কোম্পানিগুলি জানিয়েছিল এতে খুব একটা অসুবিধা হবে না গ্রাহকদের।পাবে অতিরিক্ত সুবিধাও। নতুন সংশোধনী দামে তারা নিয়ে এসেছিল একাধিক নতুন প্ল্যান।

যদি গ্রাহকরা প্রতিমাসেই ২৪৯ টাকার কাছাকাছি রিচার্জ করে, তাহলে বছরের হিসেবে টাকার অঙ্কটি গিয়ে দাঁড়ায় ২৯৮৮ টাকায়। খুব কম করে যদি ১৯৯ টাকারও রিচার্জ করা হয়, সেক্ষেত্রেও বছরে প্রায় ২৩৮৮ টাকা খরচ হয়। তবে পুরোটাই নির্ভর করে গ্রাহকদের উপরে। কিন্তু মাসে মাসে রিচার্জ না করে যদি একেবারে বছরের জন্য করা হয়, সে ক্ষেত্রে গ্রাহকেরা প্রায় ৪০০-৫০০ টাকা বাঁচাতে পারবেন।

জিও গ্রাহকদের জন্য বছরে ২০২০ টাকার প্ল্যান রয়েছে। এতে প্রতিদিন দেড় জিবি ডেটার পাশাপাশি আন লিমিটেড কলিং সুবিধাও রয়েছে। এছাড়াও মেসেজের সুবিধাও থাকছে গ্রাহকদের জন্য। এই একই সুবিধা পাওয়া যাবে ভোডাফোনের ২৩৯৯ টাকার এবং আইডিয়ার ২৩৯৮ টাকার প্ল্যানেও।

তাই জিও গ্রাহকরা যদি মাসে মাসে ১৯৯ টাকার রিচার্জ করা হয় সেই হিসেবে বছরে যে কোন গ্রাহককে ২৩৯৯ টাকা খরচ করতে হবে। কিন্তু তিনি একেবারে ২০২০ টাকার প্ল্যান রিচার্জ করলে প্রায় ৩৬৮ টাকার কাছাকাছি বাঁচাতে পারবেন।

পাশাপাশি ভোডাফোন এবং এয়ারটেলের গ্রাহকরা যদি মাসিক ২৪৯ টাকা খরচ করেন সে ক্ষেত্রেও তাদের ২৯৮৮ টাকা বছরে খরচ হবে।