নয়াদিল্লি: কোস্ট গার্ডের জন্য ১৪টি প্যাট্রল ভেসেল তৈরি করবে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ। সংস্থার তরফ থেকে এমনটাই জানিয়েছেন, কোস্ট গার্ডের আইজি টিপি সদানন্দন। সেইসঙ্গে একটি ট্রেনিং শিপও তৈরি করবে ওই সংস্থা। ইতিমধ্যেই হয়ে গিয়েছে সেই চুক্তি।

২০১৯-এর জানুয়ারিতে প্রথম ভেসেলেটি ডেলিভারি দেওয়া হবে। এরপর প্রত্যেক তিন মাস অন্তর একটি করে ভেসেল দেওয়া হবে। প্রত্যেকটি ভেসেলে থাকবে একটি ৩০ এমএম রাইফেল ও দুটি ১২.৭ এমএম রাইফেল। এর গতি হবে ৩৩ নটস।

অন্যদিকে, উৎসবের মরশুমে এমন হামলার আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন উত্তর-পূর্ব কোস্ট গার্ডের ইন্সপেক্টর জেনারেল কে এস শেরন। তিনি জানিয়েছেন, যে কোনও পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকতে তিনি নির্দেশ দিয়েছেন কোস্ট গার্ডের সব ডিস্ট্রিক্ট কমান্ডারকে।

বিশেষ করে ডোকলাম ইস্যু নিয়ে চিন ও ভারতের সংঘাতের কারণেই নিরাপত্তা আরও জোরদার করা হচ্ছে বলে উল্লেখ করেছেন কোস্ট গার্ডের মুখপাত্র ডেপুটি কমান্ডান্ট অভিনন্দন মিত্র। এক বিবৃতিতে তিনি জানিয়েছেন, ‘আসন্ন দুর্গা পূজা ও দিওয়ালিতে জলপথে জঙ্গিরা এসে হামলা চালাতে পারে, এই আশঙ্কা করে বাংলা ও ওড়িশার সীমান্তে কোস্ট গার্ডের নজরদারি বাড়ানো হল।’ কোনও জরুরি পরিস্থিতিতে কিভাবে কোস্ট গার্ড মোকাবিলা করবে, সেটা খতিয়ে দেখেছেন কোস্ট গার্ড কমান্ডার।

সম্প্রতি দু’দিনের ইন্সপেক্টর জেনারেল কে এস শেরন রাজ্যে দু’দিনের একটি কনফারেন্স করেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন হলদিয়া ও পারাদীপের কোস্ট গার্ড হেডকোয়ার্টারের অফিসারেরা। কোস্ট গার্ডের এয়ার স্কোয়াড্রনও এই কনফারেন্সে যোগ দেয়। উত্তর-পূর্বের কোস্ট গার্ডের ভূমিকা খতিয়ে দেখা হয় এই সম্মেলনে। জানা গিয়েছে, গত এক বছরে আটকে পড়া মৎস্যজীবীদের নৌকা থেকে ৩৮৩ জনকে উদ্ধার করেছে কোস্ট গার্ড।