ফাইল ছবি। ঘটনার সঙ্গে কোনও যোগ নেই।

কলকাতা: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ইস্যুতে রাজ্যবাসীর আস্থা অর্জনে এবার অমিত শাহের উপরেই ভরসা রাখছে বঙ্গ বিজেপি। আগামী পয়লা মার্চ কলকাতায় সিএএ নিয়ে সভা করবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে রাজ্যবাসীকে আশ্বস্ত করতে বিশদে বক্তব্য পেশ করুন শাহ, এমনই চাইছেন রাজ্য বিজেপির নেতারা।

সিএএ ইস্যুতে জ্বলছে দিল্লি। উত্তর-পূর্ব দিল্লির জাফরবাদ, মৌজপুর, ভজনপুরা, চাঁদবাগ, কারাওয়াল নগরে সংঘর্ষ চরম আকার নিয়েছে। মূল এই এলাকাগুলিতেই সিএএ সমর্থক ও বিরোধীদের সংঘর্ষ চলছে। মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত সংঘর্ষে ১৩ জনের মৃত্যুর মৃত্যু হয়েছে। সংঘর্ষে আহত হয়েছেন দু’শোরও বেশি। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ইস্যুতে এরাজ্যেও চলছে একাধিক বিক্ষোভ কর্মসূচি।

রাজ্যবাসীর একাংশও সিএএ নিয়ে এখনও সন্দিহান বলে দাবি কোনও কোনও মহলের। এবার তাই খোদ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে দিয়েই রাজ্যবাসীর সেই সংশয় দূর করতে তৎপর হয়েছে বঙ্গ-বিজেপি। মঙ্গলবার বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানান, রাজ্যের একাংশের বাসিন্দাদের মধ্যেও সিএএ নিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি করা হয়েছে। অমিত শাহ নিজেই সিএএ পাশ করিয়েছেন সংসদে। তাই উনি সবার সামনে সিএএ নিয়ে বললে মানুষের মনে বিশ্বাস জন্মাবে।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে দেশের বিভিন্ন অংশের পাশাপাশি এরাজ্যেও অভিনন্দন যাত্রা করছে বিজেপি। কখনও পদযাত্রা কখনও আবার বাড়ি-বাড়ি ঘুরে নাগরিকত্ব আইন নিয়ে মানুষকে সচেতন করে তোলার কাজ চালাচ্ছেন বিজেপি নেতারা।

সিএএ-র পক্ষে সওয়াল করতে জেলায়-জেলায় সভা-মিছিলেরও আযোজন করা হচ্ছে। রাজ্য নেতাদের পাশাপাশি অনেক সময় সেই সভা-মিছিলে হাজির থাকতে দেখা যাচ্ছে বিজেপির কেন্দ্রীয়স্তরের নেতাদেরও।

আগামী ১ মার্চ কলকাতায় শহিদ মিনারের জনসভায় সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে বক্তব্য রাখবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সিএএ পাশ করানোর জন্য রাজ্য বিজেপির তরফে এবং রাজ্যের উদ্বাস্তুদের তরফে শাহকে অভিনন্দন জানানো হবে সমাবেশ মঞ্চে।