স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমান কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে এই প্রথম সাজাপ্রাপ্ত বন্দীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে শীতকালীন মেলা। আগামী ২৫ ও ২৬ জানুয়ারী দুদিন ব্যাপী এই মেলা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন, রাজ্য কারা দফতরের বর্ধমান রেঞ্জের ডিআইজি নবীন কুমার সাহা।

জেল থেকে সংশোধনাগার। সংশোধনাগার মানে সেখানে বন্দীদের সমাজের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ। আর এই উদ্যোগের অঙ্গ হিসাবে গতবছর থেকে শুরু হয়েছে সাজাপ্রাপ্ত বন্দীদের নিয়ে নানান অনুষ্ঠান। প্রথমবার কলকাতার প্রেসিডেন্সী সংশোধনাগারের পর এবার জেলায় জেলায় এই কর্মসূচী ছড়িয়ে দেবার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সেই কর্মসূচী অনুযায়ী, এবার বর্ধমান কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার এবং এরপর জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে বন্দীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এই শীতকালীন মেলা।

মেলা উপলক্ষ্যে বর্ধমান কেন্দ্রীয় সংশোধনগার প্রাঙ্গণে থাকছে ১০টি স্টল। স্টল গুলিতে থাকবে বন্দীদের নিজেদের হাতে তৈরি বিভিন্ন দ্রব্য। বর্ধমান কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের বন্দীরা বর্তমানে তৈরি করছেন মধুবনী শাড়ি। সেই শাড়ি বিক্রির ব্যবস্থাও থাকছে মেলায়। থাকবে বন্দীদের হাতে তৈরি টেরাকোটার গয়না, ব্যাগ, কুকিজ, সর্ষের তেল, গামছা, মুড়ি ও আসবাবপত্র সহ রকমারি জিনিস। এছাড়াও থাকবে, বন্দীদের হাতে তৈরি বিভিন্ন খাবারের স্টলও। খোলামেলা এই মেলায় সাধারণ মানুষের প্রবেশাধিকার রয়েছে অবাধ। দুপুর ৩টে থেকে রাত্রি প্রায় সাড়ে ৮টা পর্যন্ত চলবে এই মেলা।

ডিআইজি নবীন সাহা আরও জানান, একদিকে, বন্দিদের খোলা আকাশের নীচে সাধারণ মানুষের মাঝে হাজির করা আর বিশিষ্ট শিল্পীদের বন্দিদের মাঝে হাজির করা দুই কর্মসূচিই থাকছে। বর্ধমান কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের বন্দিদের জন্য আসছেন দুই খ্যাতনামা শিল্পী অর্ঘ্য দত্ত এবং ইলা বিশ্বাস। তাঁরা বন্দীদের গান শোনাবেন। এছাড়াও বাইরের মেলায় বর্ধমান কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের সাজাপ্রাপ্ত প্রায় ৬১ জন বন্দীদের সাঁওতাল নাচ সহ দমদম কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের বন্দিরা পরিবেশন করবেন মহুয়া সুন্দরী নামে একটি বাউল গান আশ্রিত নাটক। থাকছে বিভিন্ন বন্দিদের মার্শাল আর্ট প্রদর্শনী, মেদিনীপুরের বন্দিদের ছৌনাচ,আলিপুরদুয়ারের নারী শক্তির উদ্যোগে নাটক প্রভৃতি।

জানা গিয়েছে, মোট প্রায় ১১০জন বন্দী এই মেলায় অংশ নিচ্ছেন। আর সাধারণ মানুষের মাঝে তাঁদের এই উপস্থিতিতে থাকছে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ২৫ জানুয়ারী এই মেলার উদ্বোধন করবেন রাজ্য কারা দফতরের মন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস।