লিসবন: পর্তুগালে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে তাপমাত্রা৷ একটু ঠান্ডা পেতে স্পেনে গিয়ে সমুদ্রে গা ভাসাচ্ছে মানুষ৷ পর্তুগালের অবস্থা এতটাই উত্তপ্ত যে বাধ্য হয়েই লাল সতর্কতা জারি করল প্রশাসন৷ রেড অ্যালার্ট জারি স্পেনেও৷

পর্তুগালের তাপমাত্রা ৪৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস৷ ২০০৩ সালে সর্বোচ্চ ৪৭.৪ ডিগ্রির সম্মুখীন হয়েছেন এদেশের মানুষ৷ তাপমাত্রা বৃদ্ধির পাশাপাশি চলছে গরম ও শুষ্ক হাওয়া৷ তবে, বনাঞ্চলে দাবানলের দাপট থাকায় তাপমাত্রার পারদ মারাত্মক আকারে বাড়ছে৷ পরর্তুগালের প্রায় ২,৪৭০ একর জমি দাবানলে পুড়ে ছাই৷ এখনও ৭০০ দমকলকর্মী আগুন নেভানোর কাজ চালাচ্ছেন৷ দাবানলে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত আলগার্ভ অঞ্চল৷

বাধ্য হয়ে স্পেনের লা কোনচা সমুদ্র সৈকতে উপচে পড়া ভিড়৷ বেশিরভাগ পর্যটকই পর্তুগাল থেকে এসেছেন৷ সান সাবাস্তিয়ান শহরের লা তোনচা সমুদ্রসৈকতে হোটেলের হাহাকার৷ তবে স্পেনের অবস্থাও তথৈবচ৷ লাল সতর্কতা জারি সেখানেও৷ স্পেনে তাপমাত্রা আপাতত ৪৫ ডিগ্রির কাছাকাছি৷

২০১৭ সালেই ৪৬.৯ ডিগ্রি তাপমাত্রা ছিল স্পেনে৷ শুক্রবারই প্রচন্ড তাপমাত্রায় স্পেনে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ সাহারা মরুভূমি থেকে গরম হাওয়া আসছে বলেই তাপমাত্রা বাড়ছে বলে মত আবহাওয়াবিদদের৷