মালদহ: প্রজাতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে সীমান্তরক্ষী বাহিনী ও জেলা পুলিশ প্রশাসনের কাছে সতর্কবার্তা পাঠাল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা দফতর৷ সীমান্ত পেরিয়ে এপারে প্রবেশ করে এদেশে নাশকতার ছক কষেছে জঙ্গি সংগঠন। এমনই বার্তা রয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা দফতরের রিপোর্টে। এরপরই নড়েচড়ে বসেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী ও জেলা পুলিশ প্রশাসন।

সীমান্তে অতিরিক্ত বিএসএফ জওয়ান মোতায়েন করা হয়েছে। শুরু হয়েছে কড়া নজরদারি। জারি করা হয়েছে রেড অ্যালার্ট। সীমান্তরেখার পাশাপাশি ৩৪নং জাতীয় সড়ক ও রেল পথেও নজরদারির ব্যবস্থা করা হয়েছে। সীমান্তবর্তী গ্রামগুলিতে চলছে নজরদারি। সন্দেহজনক কোন কিছু লক্ষ্য হলে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে ও সীমান্ত এলাকায় সীমান্তরক্ষী বাহিনীকে জানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এলাকাবাসীদের।

মালদহে মোট ১৭৮ কিলোমিটার ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত রয়েছে৷ তার মধ্যে ৫০ কিলোমিটার সীমান্ত উন্মুক্ত৷ প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে উন্মুক্ত সীমান্ত নিয়েই উদ্বিগ্ন পুলিশ ও সীমান্তরক্ষী বাহিনীরা৷ বিএসএফ সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রতিটি বিওপিতে জওয়ানদের পাশাপাশি এক জন করে ডেপুটি কমান্ডেন্ট ও অফিসার থাকবেন৷ চলবে সাইকেলের মাধ্যমে টহলদারি৷ জলপথে থাকবে স্পিড বোট৷ ইতিমধ্যে মালদহের বিভিন্ন জায়গায় চলছে পুলিশের নাকা চেকিং৷

বিএসএফের ২৪ নম্বর ব্যাটালিয়নের কমান্ডেন্ট অনিল কুমার হোতকার বলেন, ‘‘আমরা ২৪ ঘণ্টা সজাগ থাকি নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য৷ তাই গ্রামবাসীদের আমরা অনুরোধ করেছি সন্দেহজনক কাউকে দেখলেই যেন আমাদের খবর দেয়৷ আমরা সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেব৷’’