স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বর্তমানে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানালেন মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা। বৃহস্পতিবার তিনি জানান, এই মুহূর্তে রাজ্যে সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৭০.৪ শতাংশ। মৃত্যুহার কমে হয়েছে ২.২ শতাংশ। তার মধ্যে ৮৭.৬ শতাংশ মানুষের মৃত্যু হয়েছে কো-মর্বিডিটির জন্য। এই রিপোর্ট দেখে সন্তোষ প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এই তথ্য দেখে মুখ্যমন্ত্রী জানান, রাজ্যের সুস্থতার হার সত্যিই ইতিবাচক। তার জন্য কোভিড ওয়ারিয়র অর্থাৎ স্বাস্থ্য ও প্রশাসনের সঙ্গে যুক্ত সবার প্রশংসা করেছেন তিনি। সেই সঙ্গে রাজ্যের টেলিমেডিসিন পরিষেবারও প্রশংসা করেছেন।

বৃহস্পতিবার নবান্ন সভাঘরে সংবাদিক বৈঠকে হাজির ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ প্রশাসনিক কর্তারা। সেখানে মুখ্যসচিব জানান, এই মুহূর্তে মোট আক্রান্তের ১৮ শতাংশ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তিনি বলেন, রাজ্যের ৭০ শতাংশ মৃত্যুর ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে, হাসপাতালে দেরি করে যাওয়ায় সমস্যা হয়েছে। তাই অক্সিজেন লেবেল ৯০-এর কম হলেই হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

এদিন করোনা মোকাবিলায় একাধিক গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপের কথা ঘোষণা করা হয়। করোনার সঙ্গে লড়তে দৈনিক ২৫ হাজার পরীক্ষার লক্ষ্যমাত্রা রাখা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার সেই লক্ষমাত্রা পার করে গিয়েছে। এদিন রাজ্যে ২৫ হাজার ৬০০ টি পরীক্ষা হয়েছে। করোনা রোগীদের জন্য রাজ্যে শয্যা সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে। বর্তমানে রাজ্যে করোনা রোগীদের জন্য শয্যার সংখ্যা ১১ হাজার ৫৬০টি। আগেই চালু হয়েছে প্লাজমা ব্যাংক। এবার কর্ড ব্লাড ব্যাংককেও কাজে লাগানোর কথা ভাবছে প্রশাসন।

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, ১৮০০৩১৩৪৪৪২২২-এই হেল্পলাইন নম্বরটিতে ফোন করলে স্বাস্থ্য দফতরের তরফে সমস্ত সাহায্য মিলবে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা