ওয়াশিংটন: ২০২০ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে গত ২০১৬ সালের রেকর্ড ভেঙে ইতিমধ্যে ৫.৮৭ কোটি প্রি-পোল ভোট পড়েছে আমেরিকায়। কিন্তু যেভাবে নজিরবিহীন ভাবে মেইলের মারফত ব্যালট আসছে তা দেখে মনে করা হচ্ছে এবার নির্বাচনের ফল প্রকাশ হতে দেরি হবে বলে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে খবর। তাছাড়া ৩ নভেম্বর চূড়ান্ত ভোট প্রক্রিয়া আগে আরও বেশ কয়েক দিন রয়েছে যে কদিন ভোটাররা প্রি-পোল ব্যালটে ভোট দিতে পারবেন। ফলে অংকটা আরও বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

ভোট দরজায় কড়া নাড়ছে। কিন্তু করোনার প্রকটে প্রি-পোল ভোটের দিকে লোক বেশি ঝুঁকছে। যেভাবে রবিবার পর্যন্ত ভোট পড়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে ২০১৬ তুলনায় ইতিমধ্যেই সংখ্যাটা অনেক বেশি কারণ সেবার প্রি-পোল ব্যালট এবং ইমেইল মারফত ভোটের সংখ্যাটি ছিল ৫ কোটি ৭০ লক্ষ। এবার ইতিমধ্যেই ভোট পড়েছে ৫ কোটি ৮৭ লক্ষ।

এবারের নির্বাচনে প্রি-পোল ভোট নিয়ে প্রচারের সময় থেকেই বিতর্ক দানা বাঁধে। ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেন
প্রি-পোলের দিকে জোর দিতে চান। অন্য দিকে আবার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পোস্টাল ব্যালটের পাশাপাশি ভোটের দিন ফের ভোট দেওয়ার জন্য আর্জি জানান। যার ফলে কিছুটা বিতর্ক গড়ায়।

এই বছর মোটামুটি ১৫ কোটি ভোট পড়তে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে। আগের বারে মোট ভোট পড়েছিল প্রায় ১৩ কোটি ৭০ লক্ষ। পাশাপাশি কেউ কেউ আশঙ্কা করছেন করোনার কারণে বহু মানুষ ভোট দিতে পারবেন না বা বেরিয়ে এসে ভোট দিতে চাইবেন না।

ভোটের আগে এই সপ্তাহটাই হাতে পাচ্ছেন ট্রাম্প এবং বাইডেন প্রচারের জন্য। ফলে প্রচার নিয়ে ব্যস্ততা এখন তুঙ্গে। দুই পক্ষই এখন জনগণের সামনে তুলে ধরতে চাইছেন ক্ষমতায় এলে তাদের প্রশাসন কি ধরনের কাজ করবেন। ৩ নভেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মূল ভোট পর্ব সম্পন্ন হবে। তবে বিভিন্ন জনমত সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে এগিয়ে রয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I