স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: রাজ্যে সদ্য শেষ হওয়া তিনটি উপনির্বাচনের তিনটি আসনেই তৃণমূল জিতেছে ফলে বিজেপি ঝুলি শূণ্য ৷ এই অবস্থায় ফের মুকুল রায়ের পুত্র তথা বিধায়ক শুভ্রাংশু রায় তৃণমূলে ফিরছেন বলে নানামহলে চর্চা শুরু হয়েছে ৷  যদিও  তৃণমূলে ফেরার জল্পনা একেবারে ওড়ালেন বিজেপি নেতা শুভ্রাংশু রায়। যেখানে আছেন, ভালই আছেন বলেই দাবি করলেন মুকুলপুত্র। অর্থাৎ তিনি বিজেপিতেই থাকছেন। শুভ্রাংশুর তৃণমূলে ফেরার খবর ভুল বলে অ্যাখ্যা দিলেন তিনি।

kolkata24x7-কে শুভ্রাংশু বলেন, “আমি যে ধরণের রাজনীতি করি, সবাইকে সম্মান জানিয়েই বলছি, তাতে জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে আমার এই নিয়ে আমার যোগাযোগ রাখার কিছু নেই। আমার যদি যোগাযোগ করার হয়, স্বয়ং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেই যোগাযোগ করতে পারব। এছাড়া আর অন্য কারও সঙ্গে যোগাযোগ করার দরকার হবে না।”

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মায়ের সমান মনে করতেন শুভ্রাংশু। এখনও তিনি যে সমান সম্মান করেন তৃণমূল সুপ্রিমোকে সে কথাও মনে করিয়ে দিলেন মুকুলপুত্র, “ভ্রান্ত খবর ছড়িয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করার কোনও মনে হয় না। আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এখনও সম্মান করি এবং করে যাব। তাই যদি যোগাযোগ রতে হয় আমি তাঁর সঙ্গেই যোগাযোগ করব। কিন্তু এরকম কোনও সম্ভাবনাই নেই। আমি যেখানে আছি, ঠিক আছি। মানুষকে বিভ্রান্ত করার জন্য এখন খবর ছড়ানো হচ্ছে।”

ফাইল ছবি

দলবদলের রাজনীতিতে বোঝার উপায় নেই কে কোন দলে! খবর ছড়িয়েছিল শুধু শুভ্রাংশু নয়, অর্জুন সিংয়ের ঘনিষ্ঠ আত্মীয় সুনীল সিংও তৃণমূলে যোগ দেবেন। এই ব্যাপারে উত্তর ২৪ পরগণার জেলা তৃণমূল নেতৃত্বর সঙ্গে যোগাযোগও রাখছেন তাঁরা। তবে শুভ্রাংশু স্পষ্ট করে দিনে যে, আর তৃণমূলে ফিরছেন না তিনি।

লোকসভা ভোটে বিজেপির ভাল ফলাফলের পর সাংবাদিক সম্মেলন করে শুভ্রাংশু রায় জানান, ‘আমি বাবার কাছে হেরে গিয়েছি। এর জন্য আমি গর্বিত। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই মমতার নির্দেশে মুকুলপুত্রকে দল থেকে সাসপেন্ড করেন তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তার কিছুদিন পরেই বাবার হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দেন বীজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়। তিনি মানুষের জন্য কাজ করে যেতে যান। দলবদল নিয়ে এখন কোনও ভাবনা নেই শুভ্রাংশুর।