রিয়ালের হারের পরে রোনাল্ডো ৷

রিয়াল মাদ্রিদ-১     জুভেন্তাস -১

(রোনাল্ডো -পেনাল্টি )   ( মোরাতা )

মাদ্রিদ : ঘরের মাঠে জোড়া গোল করে বার্সেলোনাকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের রাস্তা দেখিয়ে দিয়েছিলেন লিওনেল মেসি ৷ আশা করা গিয়েছিল বার্নাব্যুতে সেই ভূমিকাতেই দেখা যাবে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে ৷পেনাল্টি থেকে গোল করে রিয়াল মাদ্রিদকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ঠিকই ৷ তবে শেষ তুলির টান দিতে পারলেন না সিআর সেভেন ৷ বুধবারের রাতে নায়কের ভূমিকাতে দেখা গেল না পর্তুগালের মহাতারকাকে ৷ রোনাল্ডো যেমন মেসি উঠলতে পারলেন না ৷ রিয়ালও তেমন বায়ার্ন মিউনিখ হয়ে উঠতে পারল না ৷ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে ছিটকে গেলেও ঘরের মাঠে বার্সাকে হারিয়ে বদলা নিয়েছিলেন টমাস মুলাররা ৷ এখানেও ব্যর্থ কার্লো অ্যানসেলোত্তির ছেলেরা ৷ ঘরের মাঠে এগিয়ে গিয়েও জুভেন্তাসের বিরুদ্ধে লিড ধরে রাখতে পারলেন না ৷ বুধবার ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হল ৷ প্রথম লেগে ২-১ গোলে জেতার জন্য (৩-২) চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে চলে গেল জুভেন্তাস ৷দুর্দান্ত ‘গেমপ্লান ফুটবল’ উপহার দিল ইতালির ক্লাবটি ৷

জুভেন্তাস তাদের ‘গেমপ্লান ফুটবল’ বা সুসংগঠিত ফুটবল উপহার দিলেও এদিন অবশ্য তাদের ভাগ্যও সঙ্গ দিয়েছে ৷ কখনও মার্সেলো, কখনও গ্যারেখ বেল , কখনও জেমস রডরিগেজ আবার কখনও রোনাল্ডো বারবার আক্রমণ করেছেন ৷ কিন্তু কখনও বুঁফো আটকেছেন, আবার কখনও বাইরে মেরেছেন বেলরা ৷আক্রমণগুলোকে ঠিকমতো কাজে লাগাতে পারলে এদিন অনন্ত দু-থেকে তিনটে গোল করতে পারত রিয়াল ৷ কিন্তু ফুটবল দেবতা এদিন জুভেন্তাসের পক্ষেই ছিল ৷ তাই শেষ হাসি হাসল ইতালির দলটি ৷ ম্যাচ শেষে রোনাল্ডোরা হতাশা ডুবে গেলেন ৷ গ্যালারিতে রোনাল্ডো ভক্তদেরও চোখের জল ফেলতে দেখা গেল ৷

ঘরের মাঠে প্রথম লেগে ২-১ গোলে জিতেছিল জুভেন্তাস ৷ তাই কিছুটা বাড়তি সুবিধা ছিল অ্যান্দ্রে পিরলো-তেভেজদের ৷ অন্যদিকে ঘরের মাঠে বদলা নেওয়ার তাগিদ ছিল রিয়ালের ৷ ফাইনালে যেতে গেলে এই ম্যাচে নুন্যতম এক গোলে জিততেই হত ৷ তাই শুরু থেকেই ঝাঁপিয়ে পড়েন রোনাল্ডো-বেলরা ৷চোট সারিয়ে মাঠে ফিরেই স্বমহিমায় করিম বেনজিমা ৷ পাঁচ মিনিটেই গোলের সুযোগ নষ্ট করেন তিনি ৷ এরপর রোনাল্ডোর ফ্রি-কিকও বাইরে গেল ৷২০ মিনিটে বেলের দুরন্ত শট আটকান জুভেন্তাস গোলরক্ষক ৷তবে গোল পেতে অবশ্য বেশি সময় লাগেনি রিয়ালের ৷ জেমস রডরিগেজকে ফাউল করার জন্য পেনাল্টি দেন রেফারি ৷ ২৩ মিনিটে রোনাল্ডোর পেনাল্টি গোলে এগিয়ে যায় রিয়াল ৷এই গোলের পরেও রিয়াল দুরন্ত ফুটবল খেলেছে ৷ প্রথমার্ধে শেষ পর্বে বেনজিমা গোলের সুযোগ তৈরি করে ৷ বিরতির সময় অবশ্য এক গোলেই এগিয়ে ছিল লা লিগার বিখ্যাত ক্লাবটি ৷ কিন্তু বিরতির পরে পাল্টা ধাক্কা দিতে শুরু করে জুভেন্তাস ৷ ৫৭ মিনিটে জুভেন্তাসের গোল শোধ করে ৷গোল করেন মোরাতা ৷ এরপর গোলের ব্যবধান বাড়ানোর জন্য মরিয়া হয়ে উঠে রিয়াল ৷ রডরিগেজ ও বেলের দুটো ভালো প্রচেষ্টা হলেও ব্যবধান বাড়াতে পারেনি রিয়াল ৷ বরং পরে গোল করার সুযোগ পেয়েছিল জুভেন্তাসও ৷ যদিও তারা গোল করতে পারেনি ৷ শেষ পর্যন্ত ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র করেই মাঠে ছাড়েন রোনাল্ডোরা ৷

 

Comments are closed.