তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রের শালতোড়ার ১ নম্বর ছাতারকানালী বুথে পুননির্বাচন শুরু হয়েছে। পুননির্বাচন উপলক্ষ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী ও রাজ্য পুলিশের উপস্থিতিতে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে এদিন সকাল থেকেই মানুষ ভোটের লাইনে দাঁড়িয়েছেন। একই সঙ্গে পুরো এলাকা সিসিটিভির নজরদারিতে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১২ মে ষষ্ঠ দফার নির্বাচনের দিন শালতোড়ার এই ছাতারকানালী বুথে ভোট চলাকালীন দুষ্কৃতিরা হামলা চালায়। আছড়ে ফেলে ভেঙ্গে দেওয়া হয় ইভিএম। ততক্ষণে প্রায় ৬৩ শতাংশ ভোট পড়ে গিয়েছিল বলে জানা গেছে। পরে অপ্রীতিকর পরিস্থিতির জেরে সেদিন ভোট প্রক্রিয়া বন্ধ রাখতে বাধ্য হয় নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে ১,২১৪ জন ভোটারের এই বুথে রবিবার ফের ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। এদিন ছাতারকানালী বুথে গিয়ে দেখা গেল মানুষ উৎসবের মেজাজে ভোট দিচ্ছেন। জেলায় এই মুহূর্তে তীব্র তাপপ্রবাহ চলছে। ভোটারদের যাতে কোন ধরণের সমস্যা না হয় সেকারণে পুরো এলাকা জুড়ে ছাউনীর ব্যবস্থা করা হয়েছে। পুরুষদের পাশাপাশি মহিলাদেরও দীর্ঘ সময় ধরে ভোটের লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গিয়েছে।

এদিন সকাল থেকেই নির্বাচন কমিশনের তরফে দায়িত্বপ্রাপ্ত অবজার্ভার ঐ বুথে রয়েছে। ভোট পরিস্থিতি দেখে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। বেলা ১২ টা পর্যন্ত এখানে ৪০ শতাংশ ভোট পড়েছে। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কোন রাজনৈতিক দলের তরফে পুননির্বাচন নিয়ে কোন ধরণের অভিযোগ করা হয়নি।

গত রবিবারের পর পুননির্বাচনের কারণে এদিন ফের আর একবার ভোটের লাইনে দাঁড়িয়ে ডলি মণ্ডল বলেন, আজ শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট হচ্ছে। সেদিন এই বুথে সকাল থেকেই উত্তপ্ত পরিবেশ ছিল। ফলে স্বাভাবিকভাবেই মনের মধ্যে ভয় ছিল। এদিন সে পরিস্থিতি আর নেই বলেই তিনি জানান। লক্ষণ মণ্ডল নামে অন্য এক ভোটার বলেন, ঐদিন সকালেই ভোট দিয়েছিলাম। পরে দুপুরের দিকে মারামারি ও ইভিএম ভাঙ্গচুরের ঘটনা ঘটে বলে শুনেছিলাম। তবে এদিনের পুননির্বাচনে মোটের উপর ভোট যথেষ্ট শান্তিপূর্ণ হচ্ছে বলেই তিনি জানান।