মুম্বই: রিজার্ভ ব্যাংকের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস বুধবার জানিয়েছেন, একেবারে সাম্প্রতিক তথ্য ইঙ্গিত করছে চলতি অর্থবছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে স্থিতিশীল অর্থনীতির। বণিকসভা ফিকি আয়োজিত এক ওয়েব মিনারে এদিন তিনি জানিয়েছেন ধীরে ধীরে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াচ্ছে।

নতুন বাজার লাফিয়ে ফিরছে এবং রেপো রেট কমানোয় প্রধান প্রধান কাজ গুলি করা সহজ হচ্ছে বলে তিনি জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেছেন, বর্তমানে সরকারি বন্ড মারফত ঋণ নেওয়ায় সুদের হার গত১০ বছরে সর্বনিম্ন।২৮ অগাস্ট পর্যন্ত ৩.২ ট্রিলিয়ন কর্পোরেট বন্ড ছাড়া হয়েছে।

রিজার্ভ ব্যাংকের গভর্নর জানিয়েছেন, মাইক্রোফিনান্স ইনস্টিটিউট গুলি, ছোট এনবিএফসি এবং সমবায় ব্যাংক গুলির জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে । সব সময় এনএইচবি, সিডবি, বাজারের উপর নজর রাখছে এবং রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ব্যবস্থা নিচ্ছে প্রয়োজনমতো।

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক পাঁচটি বিষয়ে নজর দিচ্ছে যাতে অর্থনীতি পুনরুজ্জীবিত হয় আগামী কয়েক মাসে বলে শক্তিকান্ত দাস জানিয়েছেন। প্রস্তাবিতএই পাঁচটি প্রধান ক্ষেত্র যেগুলির উপর নজর রাখা হচ্ছে যাতে মধ্যমেয়াদে ভারতের বৃদ্ধি হতে পারে। এই পাঁচটি বিষয় হলো ১) মানব সম্পদ বিশেষত জোর দেওয়া হচ্ছে শিক্ষা ও স্বাস্থ্যের দিকে। ২) উৎপাদনশীলতা, ৩) রপ্তানি যাতে বিশ্ব দুনিয়ায় নেতৃত্ব দিতে ভারতের ভূমিকা থাকে ৪) পর্যটন ৫) খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ ও তার সহযোগী উৎপাদনশীলতার ক্ষেত্র।

গত মার্চ মাসে রিজার্ভ ব্যাংকের ঘোষণা করেছিল ঋণগ্রহীতাদের কিছু সুবিধা দিতে মোরাটোরিয়ম যাতে তাদের এই করোনা অতি মহামারীর সময় ব্যবসা চালিয়ে যেতে সুবিধা হয়। রিজার্ভ ব্যাংকের তথ্য অনুসারে এই গ্রাহক এর সুবিধা নিয়েছে। প্রথমে এই সুবিধা ৩১ মে পর্যন্ত করা হয়েছিল পরে তা বাড়িয়ে ৩১ অগাস্ট পর্যন্ত করা হয়।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।