নয়াদিল্লি: চলতি অর্থবর্ষে একটা ২০০০ টাকার নোট ছাপানো হয়নি। রিজার্ভ ব্যাংকের তরফে এমনতাই জানানো হয়েছে।

তথ্য জানার অধিকার আইনে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস একটি আরটিআই করেছিল। তার জবাবেই আরবিআই জানিয়েছে ২০২০ অর্থবর্ষে ২০০০ টাকার নোট ছাপানো বন্ধ হয়ে গিয়েছে।

বেশ কিছুদিন ধরেই এটিএম গুলিতে ২০০০ টাকার নোটের জোগান কমে যাচ্ছিল। এবার জানা গেল আরবিআই ২০০০ টাকার নোট ছাপানো বন্ধ করে দেওয়াতেই এটিএম গুলিতে এই নোট অপেক্ষাকৃত কম পাওয়া যাচ্ছে।

এক আধিকারিকের মতে, বড় নোটে পাচারের ক্ষেত্রে সুবিধা হয়, আর তা সরকারের লক্ষ্যের বিরোধী। তাই, এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অথচ এর আগে ২০০০ টাকার নোট ছাপানো বন্ধ হওয়ার কথা শোনা গেলেও, তা অস্বীআর করে কেন্দ্র।

আরটিআইয়ের জবাবে আরও বলা হয়েছে, ২০১৭ সালে ৩৫৪২.৯৯১ মিলিয়ন ২ হাজার টাকার ব্যাঙ্কনোট ছাপিয়েছিল আরবিআই। ২০১৮ সালে তা কমে দাঁড়ায় ১১১.৫০৭ মিলিয়নে। পরে তা আরও কমে ৪৬.৬৯০ মিলিয়নে নেমে আসে ২০১৯ সালের অর্থবর্ষে।

২০১৬ সালের নভেম্বর মাসে পুরনো ৫০০ ও ১ হাজার টাকার নোট বাতিল হওয়ার পরই নতুন ২ হাজার টাকার নোট বাজারে এসেছিল। এরপর প্রথম অর্থবর্ষের পর ধীরে ধীরে তা ছাপানো বন্ধ করে দেয় কেন্দ্র। এখন পুরোপুরি বন্ধ করে দিয়েছে বলেই জানাল আরবিআই।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই এনআইএ দাবি করেছে যে উচ্চমানের নকল নোট বাজারে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে আর তার মূল উৎস হল পাকিস্তান।