মুম্বই: রিজার্ভ ব্যাংকের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস জানালেন রেপো রেট ৪০ বেসিস পয়েন্ট কমানো হলো। এদিন তিনি জানান, মনিটারি পলিসি কমিটি এক অনির্ধারিত বৈঠকে বসে সর্বসম্মতভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেপো রেট কমানোর।

৪০ বেসিস পয়েন্ট রেপো রেট কমানোর ফলে তা এখন গিয়ে দাঁড়ালো ৪ শতাংশ যেটা আগে ছিল ৪.৪ শতাংশ।

রেপো রেট কমানোর ব্যাপারে সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত হলেও রিজার্ভ ব্যাংকের মনিটারি পলিসি কমিটি ৫:১ অনুপাতে ভোটের ভিত্তিতে তা কতটা কমানো হবে তা ঠিক হয় বলে জানিয়েছেন শক্তিকান্ত দাস।

এদিকে পাশাপাশি আবার লকডাউনের সময় আর্থিক চাপের কথা চিন্তা করে ‌ ঋণ পরিশোধের মোরাটরিয়ামের সময় আরও তিন মাস বৃদ্ধি করা হলো। অর্থাৎ আগে যেটা মার্চ থেকে মে করা ছিল সেটা আরও তিন মাস ১ জুন থেকে ৩১ অগাস্ট বাড়িয়ে দেওয়া হল।

এদিকে লকডাউনের জেরে অর্থনৈতিক কার্যকলাপ স্তব্ধ হয়ে যাওয়ায় রিজার্ভ ব্যাংক মনে করছে চলতি আর্থিক বছরে ২০২০-২১ সালে বৃদ্ধির বদলে সংকোচন হবে। তবে অর্থবর্ষে দ্বিতীয় অর্ধে কিছুটা অবস্থা উন্নতি হবে বলে আশা করা হচ্ছে। রিজার্ভ ব্যাংকের এমন পূর্বাভাসের নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে শেয়ারবাজারে। ইতিমধ্যেই সেনসেক্স ৩০০ পয়েন্ট নেমে গিয়েছে।

এদিকে আবার শক্তিকান্ত দাস এই পরিস্থিতিতে মুদ্রাস্ফীতি ঘিরে অনিশ্চয়তা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। করোনা অতি মহামারী কারণে দেশে মূল্যবৃদ্ধির রুখতে আমদানি শুল্ক যাতে বেশি না বাড়ে সে ব্যাপারে পর্যালোচনা করা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন। বছরের প্রথমার্ধে মাথাচাড়া দিলেও দ্বিতীয় অর্ধে কিছুটা শিথিল হবে বলে আশা করা হচ্ছে। বিশেষত্ব তৃতীয় এবং চতুর্থ ত্রৈমাসিকে মুদ্রাস্ফীতির হার ৪ শতাংশ ধরে রাখা যেতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছেন।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।