নয়াদিল্লি: আপনি যদি ব্যাংকিং সম্পর্কিত কাজ করতে চান, তবে তা আর আগামীকালের জন্য ফেলে রাখবেন না। ২৫ নভেম্বর অর্থাৎ আজই সেরে ফেলুন যাবতীয় কাজ। কারণ ২৬ নভেম্বর দেশের বেশিরভাগ ব্যাংক কাজ করবে না। বেশ কিছু ব্যাংক ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের গ্রাহকদের উদ্দেশ্যে এ বিষয়ে সতর্কতা জারি করেছে।

২৬ নভেম্বর কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নগুলির দেশব্যাপী সাধারণ ধর্মঘট রয়েছে। আপাতত পাওয়া খবর জানাচ্ছে, এই ধর্মঘটে যোগ দেওয়ার ঘোষণা করেছে অল ইন্ডিয়া ব্যাংক কর্মচারী ইউনিয়ন (এআইবিইএ )।

আরও পড়ুন – সিবিআইয়ের নির্দেশে গরুপাচার কাণ্ডের এনামুলের করোনা টেস্ট আইডি হাসপাতালে

এআইবিইএ জানিয়েছে, মহারাষ্ট্রে সরকারি, বেসরকারি, গ্রামীণ ব্যাংকের প্রায় ৩০,০০০ কর্মচারী এই ধর্মঘটে যোগ দেবেন।

২৬ নভেম্বরের পরের দিন শুক্রবার পড়ছে।মনে করা হচ্ছে ওইদিন ব্যাংকে কিছুটা কম কাজ হবে। এরপর শনিবার অর্থাৎ ২৮ নভেম্বর মাসের চতুর্থ শনিবার পড়ায় ব্যাংক থাকছে ছুটি। ২৯ নভেম্বর রবিবার থাকায় ব্যাংক এমনিই বন্ধ। সব মিলিয়ে ব্যাংকের কাজ সেরে ফেলতে হবে বুধবারেই।

অবশ্য ২৬ নভেম্বরের ধর্মঘট ডিজিটাল লেনদেনে কোনও প্রভাব ফেলবে না। যে কেউ নেটব্যাঙ্কিং বা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে লেনদেন পরিচালনা করতে পারেন। এটিএম থেকে টাকাও তুলতে কোনও অসুবিধা হবে না।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।