মুম্বই: বিরাট কোহলির নেতৃত্বে টিম ইন্ডিয়া যদি ইংল্যান্ডের মাটিতে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়, তা হলেও রবি শাস্ত্রীর ভারতের হেড কোচের পদে থেকে যাওয়া নিশ্চিত নয়৷ কারণ, কোচের সঙ্গে চুক্তিতে বিসিসিআই চাকরি নবীকরণ অথবা বর্ধিত করার কোনও শর্ত উল্লেখ করেনি৷

অর্থাৎ বিশ্বকাপ জিতলেও শাস্ত্রীর চাকরি পাকা নয়৷ বরং তাঁকে নতুন করে নির্বাচনী প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে কোহলিদের কোচের পদে পুনরায় আসীন হতে হবে৷ অবশ্য এক্ষেত্রে তাঁকে নতুন করে আবেদন করতে হবে না৷ বর্তমান কোচ হিসাবে সরাসরি বাছাই করা প্রার্থীদের মধ্যে সাক্ষাৎকারের জন্য গণ্য হবেন শাস্ত্রী৷

আরও পড়ুন: অজি সিরিজে হার বিরাট সতর্কতা বলছেন দ্রাবিড়

একই কথা প্রযোজ্য টিম ইন্ডিয়ার সাপোর্ট স্টাফদের ক্ষেত্রেও৷ ব্যাটিং কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার, বোলিং কোচ ভরত অরুণ ও ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধরকেও নতুন করে নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে হবে৷

বেশিরভাগ প্রথম সারির ফুটবল ক্লাব ও এনবিএ’তে যেরকম কোচের চুক্তি বাড়িয়ে নেওয়ার শর্ত থাকে, সেখানে বিসিসিআই অনিল কুম্বলের সময় থেকেই এই শর্ত তুলে দিয়েছে৷ এক বোর্ড কর্তার কথায়, ‘বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচের পরেই শাস্ত্রীসহ টিম ইন্ডিয়ার সাপোর্ট স্টাফদের সঙ্গে বোর্ডের চুক্তি শেষ হচ্ছে৷ যেহেতু চুক্তিতে মেয়াদ বাড়ানো বা পুনর্নিয়োগের কোনও শর্ত নেই, তাই বোর্ডকে নতুন করে ওয়েব সাইটে বিজ্ঞাপণ দিতে হবে কোচ নিয়োগের৷ শাস্ত্রী ডাইরেক্ট এন্ট্রির সুযোগ পেলেও নির্ধারিত প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে তবেই নতুন করে চুক্তি করতে পারবেন বোর্ডের সঙ্গে৷’

আরও পড়ুন: পেস বোলিংয়ে বিকল্প ও নাইটদের বেঞ্চ স্ট্রেনথে খুশি কালিস

যদিও সেই বোর্ড কর্তা স্বীকার করে নিচ্ছেন যে, ভারত যদি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালেও ওঠে, তবে অস্ট্রেলিয়া সফরের টেস্ট ও ওয়ান ডে সিরিজ জয়, নিউজিল্যান্ডে একদিনের সিরিজ জয়ের মতো কৃতিত্বের জন্য নতুন করে ভারতীয় কোচের পদে বসার জন্য এগিয়ে থাকবেন৷

এক্ষেত্রে বিসিসিআইকে তড়িঘড়ি নতুন কোচ নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু ও শেষ করতে হবে৷ কেননা, বিশ্বকাপের ঠিক পরেই টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হয়ে যাবে৷