নয়াদিল্লি: বোর্ডের মসনদে অভিষেক হওয়ার পর থেকেই শুভেচ্ছা-অভিনন্দনের বন্যায় ভাসছেন ‘প্রিন্স অফ ক্যালকাটা’। প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে দেশের অন্যতম সফল অধিনায়কের হাতে ভারতীয় ক্রিকেটের গুরুদায়িত্ব সঁপতেই যেন স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে দেশের ক্রিকেটমহল। দেশের গন্ডি ছাড়িয়ে ব্যাপ্তি ছড়িয়েছে বিদেশেও। বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হিসেবে সৌরভের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চলার ইঙ্গিত দিয়েছেন অভিজাত মেরিলিবোন ক্রিকেট গ্রাউন্ডের প্রথম নন-ব্রিটিশ প্রেসিডেন্ট অর্থাৎ প্রাক্তন শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা।

শুক্রবার সিএবি’র সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ভিডিওবার্তার মাধ্যমে মহারাজের কাছে অভিনন্দন পৌঁছে দিয়েছিলেন গ্রেম স্মিথ, কেভিন পিটারসন, ব্রায়ান লারারা। কিন্তু ততক্ষণ অবধি তালিকায় ছিলেন না ভারতীয় ক্রিকেট দলের কোচ রবি শাস্ত্রী। অ্যাডভাইসরি কমিটিতে থাকাকালীন সৌরভের সঙ্গে শাস্ত্রীর মতানৈক্যের কথা দেশের ক্রিকেট অনুরাগীদের অজানা নয়। ২০১৬ অ্যাডভাইসরি কমিটি কর্তৃক বিরাটদের কোচের পদপ্রার্থী শাস্ত্রীকে সরিয়ে অনিল কুম্বলেকে কোচ নির্বাচন করার বিষয় হোক কিংবা অন্যান্য ইস্যু, সৌরভের সঙ্গে খোটাখুটি লেগেই ছিল শাস্ত্রীর। অবশেষে মৌনতা ভেঙে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হওয়ার জন্য শাস্ত্রীয় অভিনন্দন পেলেন মহারাজ।

আরও পড়ুন: জ্বলে উঠলেন কৃষ্ণা-উইলিয়ামস, হায়দরাবাদকে ৫ গোল এটিকে’র

টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিরাটদের কোচ জানালেন, ‘বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট পদে বসার জন্য সৌরভকে আমার আন্তরিক অভিনন্দন। তাঁর অন্তর্ভুক্তি প্রমাণ করে ভারতীয় ক্রিকেট সঠিক দিশাতেই এগোচ্ছে।’ এখানেই শেষ নয়। সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রেসিডেন্ট সৌরভ প্রসঙ্গে শাস্ত্রীর আরও সংযোজন, ‘সৌরভের মধ্যে বরাবরই নেতৃত্ব প্রদান করার একটা সহজাত ক্ষমতা রয়েছে। তার উপর প্রশাসক হিসেবেও বর্তমানে চার-পাঁচ বছরের অভিজ্ঞতা ওর ঝুলিতে। সুতরাং, বোর্ডের প্রেসিডেন্ট পদে সৌরভের আসীন হওয়া আসলে ভারতীয় ক্রিকেটেরই জয়।’

আরও পড়ুন: ভেরি ভেরি স্পেশাল লক্ষ্মণই ছিলেন সৌরভের ‘লাইফ সেভার’

একইসঙ্গে বিরাটদের কোচ জানান, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে হাঁটছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। উন্নয়নের রাস্তায় হাঁটতে হলে বিসিসিআই’কে বেশ কিছু সংস্কারের মধ্যে দিয়ে যেতে হবে। সৌরভের জন্য আমার অনেক শুভেচ্ছা রইল।’ পাশাপাশি প্রেসিডেন্ট হয়েই আইসিসি’র থেকে বকেয়া অর্থ আদায়ের বিষয়ে মহারাজ যে সুর চড়িয়েছেন, সেই বিষয়টিকেও সমর্থন জানিয়েছেন শাস্ত্রী।

সাক্ষাৎকারে বিশ্বজয়ী অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির পাশে দাঁড়িয়ে শাস্ত্রী সমালোচকদের একহাত নিতেও পিছপা হননি। ধোনির অবসর চেয়ে যারা ব্যতিব্যস্ত হয়ে উঠেছেন তাঁদের তিরস্কার করে বিরাটদের কোচ বলেছেন, ধোনির অ্যাচিভমেন্টের ঝুলিতে যা যা রয়েছে, তাতে ধোনি নিজের ইচ্ছামতো অবসর নেবে।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।