মুম্বই: টিম ইন্ডিয়ার হেড কোচ সহ সাপোর্ট স্টাফদের মেয়াদ বাড়তে চলেছে৷ অর্থাৎ বিশ্বকাপের পরেই চাকরি যাচ্ছে না রবি শাস্ত্রীদের৷ বরং আরও কিছুদিন কোহলিদের দায়িত্ব পালণ করবেন তাঁরা৷

বোর্ডের সঙ্গে শাস্ত্রীসহ টিম ইন্ডিয়ার সাপোর্ট স্টাফদের চুক্তি ছিল চলতি আইসিসি বিশ্বকাপের শেষ পর্যন্ত৷ তার পর নতুন করে কোচ বেছে নেওয়ার কথা ভারতীয় বোর্ডের৷ তবে এক্ষেত্রে বেশ কয়েকটা অচলবস্তা তৈরির সম্ভাবনা থেকে যায়৷ প্রথমত, বিশ্বকাপের ঠিক পরেই উদ্বোধনী টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হিসাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে উড়ে যাওয়ার কথা কোহলিদের৷ ফলে দু’সপ্তাহের মধ্যে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে নতুন কোচ নিয়োগ করা কার্যত অসম্ভব৷

আরও পড়ুন: ধাওয়ানের পরিবর্তে ওয়ান ডে থেকে বাদ পড়া তারকাকে বিশ্বকাপে দেখতে চান কপিল

দ্বিতীয়ত, বিশ্বকাপের মাঝেই নতুন কোচ খোঁজার কাজ শুরু করা সম্ভব নয় বোর্ডের পক্ষে৷ কেননা, নিয়ম অনুযায়ী শাস্ত্রীদের সঙ্গে সরাসরি মেয়াদ নবিকরণের কোনও শর্ত ছিল না চুক্তিতে৷ সুতরাং কোচ হিসাবে জায়গা ধরে রাখতে হলে নতুন করে শাস্ত্রীদের আবেদন করতে হবে এবং সাক্ষাৎকার দিতে হবে৷ বিশ্বকাপের মাঝে দলের দায়িত্ব ছেড়ে শাস্ত্রীদের পক্ষে চাকরির আবেদনে ব্যস্ত থাকা যথাযথ নয়৷

অগত্যা, হেড কোচসহ সাপোর্ট স্টাফদের মেয়াদ ৪৫ দিনের জন্য বাড়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স৷ বিনোদ রাইরা সিওএ’র মার্চ মাসের বৈঠকেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন৷ বোর্ডের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বৈঠকের তথ্যবলিতেই ইঙ্গিত ছিল টিম ইন্ডিয়ার কোচেদের মেয়াদ বৃদ্ধির৷

আরও পড়ুন: প্রেস বক্স থেকে অফিসিয়াল স্কোরারের চেয়ারে বসে ইসিবি’র লজ্জা ঢাকলেন এমারসন

বিশ্বকাপে চূড়ান্ত ব্যর্থ না হলে হেড কোচ শাস্ত্রী ও তাঁর অধীনে ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং কোচ যথাক্রমে সঞ্জয় বাঙ্গার, ভরত অরুণ ও আর শ্রীধরের চাকরি যাওয়ার সম্ভাবনা কম৷ যদিও প্রাথমিকভাবে হেড কোচকে নতুন করে দলের দায়িত্ব নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে যথাযথ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে৷ পরে কোচকে তাঁর পছন্দ মতো সাপোর্ট স্টাফের দল তুলে দেওয়া হবে বোর্ডের তরফে৷