স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ফোন থেকে অশ্লীল মেসেজ এসেছে তাঁর ফোনে৷ এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়৷ ইতিমধ্যেই পর্ণশ্রী থানায় অভিযোগও দায়ের করেছেন তিনি৷ রত্না জানিয়েছেন, তাঁকে গালিগালাজ করে মেসেজ করা হয়েছে৷ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷

রত্না জানিয়েছেন, ভাইফোঁটার দিন কালীঘাটে দিদির বাড়িতে গিয়েছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ দিদির বাড়ি থেকে বেরোনোর পরই শোভনের ফোন থেকে তাঁর কাছে অশ্লীল মেসেজ আসে৷ এরপর ৮ নভেম্বর তিনি পর্ণশ্রী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন৷ রত্নার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে শোভন চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, যখন থেকে তাঁদের বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা শুরু হয়েছে তখন থেকেই রত্নার নম্বর তিনি ব্লক করে দিয়েছেন৷ তাঁর ফোন থেকে এধরনের কোনও মেসেজ যায়নি৷ এব্যাপারে আইনি ব্যবস্থা নেবেন বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন শোভন৷

এদিকে এদিনই, তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখান থেকে বেরিয়েই বিজেপিকে কটাক্ষ করেন তিনি৷ তিনি

তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন কিনা সেই প্রশ্নের উত্তরে বৈশাখী বলেন, ‘কিছুদিন অপেক্ষা করুন। আমার মতো সামান্য শিক্ষিকার বিজেপিতে দরকার নেই। তাই বিজেপিতে আমি থাকলাম কি না থাকলাম, তাতে বিজেপির কিছু যায় আসে না।’ সূত্রের খবর, পার্থ চট্টপাধ্যায়ের কাছে বৈশাখী বলেছেন, শোভনের তৃণমূলে ফেরার পথে একমাত্র কাঁটা রত্নাই৷

শোভনের সঙ্গে পার্থ বাবুর কি কথা হয়? এই প্রশ্নের উত্তরে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় সাফ জানান, ‘ওনারা দীর্ঘদিনের সহকর্মী। এক সহকর্মীর সঙ্গে আরেকজনের কথাবার্তা হবে, সেটাই স্বাভাবিক। না হলেই অস্বাভাবিক। তবে কী কথাবার্তা, তা আমার পক্ষে বলা সম্ভব না।’

উল্লেখ্য, ভাইফোঁটায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ি গিয়ে আগামী দিনের ‘পদক্ষেপ’ স্পষ্ট করে দিয়েছেন শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপরও কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবেও হাজির হয়েছিলেন দুজনেই।