স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনায় রাজ্যকে নভেম্বর মাসের রেশন দেবে না কেন্দ্র। এই মর্মে খাদ্য দফতরের মুখ্যসচিবকে চিঠিও পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রের তরফ থেকে।

তাতে বলা হয়েছে, “২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অন্ন বিতরণ পোর্টালে তথ্য না দেওয়ায় নভেম্বর মাসের রেশন পাবে না রাজ্য।“

করোনা সংক্রমণ রুখতে দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণার পরই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেছেন, চলতি বছরের নভেম্বরের শেষ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ প্রকল্পে দেশের ৮০ কোটি মানুষকে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হবে।

তাতে প্রত্যেক পরিবারে জনপ্রতি ৫ কেজি চাল বা গম ও প্রতি মাসে ১ কেজি করে ছোলা দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরপরই নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন, ‘কেন্দ্র নভেম্বর পর্যন্ত দিলে দিক, আমরা আগামী বছর জুন মাস পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন দেব।’

কিন্তু কেন্দ্রের এই চিঠির পর রাজ্যের গরিব মানুষ সমস্যায় পড়তে পারে। রেশনের খাদ্যসামগ্রী নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই অসন্তোষ প্রকাশ করেছে খাদ্য দফতর। তাদের অভিযোগ, ‘প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ খাদ্য যোজনা’র গ্রাহকদের জন্য যে খাদ্যশস্য পাঠানো হচ্ছে তার মান খুবই খারাপ।

প্রতীকী ছবি

বহু ছোলার বস্তায় পোকা ধরে গিয়েছে, গমের চেহারাও ভাল নয়। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে রেশন নিয়ে একগুচ্ছ অভিযোগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

তিনি বলেছেন, ‘ওনারা এফসিআই থেকে যে চাল নেন এবং মানুষকে দেন, তার গুণগত মান অত্যন্ত খারাপ। আমরা যেটা দিই, সেটা অনেক ভালো। কারণ আমরা চাষিদের থেকে চাল নিই।

এদিকে, রাজ্যের বিরুদ্ধে পাল্টা রেশন দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছে বিজেপি নেতারা এবং কেন্দ্রীয় সরকার। এই পরিস্থিতির মধ্যে ফের একবার কেন্দ্র–রাজ্য সংঘাত বেঁধে যেতে বসেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।