কলকাতা:  রেশন কার্ড তৈরির ক্ষেত্রে এখন থেকে আর হন্যে খুঁজতে হবে। সমস্ত ধরনের রেশন কার্ডের আবেদন করার পদ্ধতি এবার অনলাইনেই চালু হতে চলেছে। ভর্তুকিহীন রেশন কার্ডের জন্য ১০ নম্বর ফর্মে অনলাইনে আবেদন করার ব্যবস্থা খাদ্য দফতর গত ৫ নভেম্বর থেকে চালু করেছে। আর এভাবে অনলাইনে এই পরিষেবা চালু করাতে প্রচুর মানুষ এতে উপকৃত হয়েছেন। আর তা দেখে খাদ্য দফতরের সিদ্ধান্ত রেশন কার্ড সংক্রান্ত যাবতীয় আবেদন এবার থেকে অনলাইনেই করা যাবে।

পড়ুন আরও- এনআরসি আতঙ্কের মধ্যেই ডিজিটাল রেশন কার্ড নিয়ে বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

তবে এখনই নয়, আগামী মাস অর্থাৎ ডিসেম্বর থেকে এই পরিষেবা পুরোদমে চালু হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। শুধু অনলাইনেই নয়, অফলাইনেও এই বিষয়ে আবেদন করা যাবে বলে জানানো হয়েছে। অনলাইন এবং অফলাইনে এই সুবিধা চালু থাকলে বহু মানুষ এজন্যে উপকৃত হবে বলে জানানো হয়েছে।

পড়ুন আরও- সুস্মিতার জন্য স্ত্রী’র সঙ্গে অন্যায় করেছিলেন, অনুতাপ বিক্রমের

এখন খাদ্য দফতরের তাদের ওয়েবসাইটে ১০ নম্বর ফর্ম পূরণ করার সুযোগ দিচ্ছে। রেশন কার্ড সংক্রান্ত যাবতীয় কাজের জন্য রাজ্যজুড়ে গত ৫ নভেম্বর থেকে দ্বিতীয় পর্যায়ের বিশেষ শিবির চালু হয়েছে। যা আগামী ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে বলে বাংলা এক সংবাদপত্রে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে। তবে খাদ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, আগের বারের তুলনায় বিশেষ শিবিরে ভিড় অনেক কমে গিয়েছে। সব ধরনের ফর্ম অনেক কম জমা পড়ছে। ৩০ নভেম্বরের পর অনলাইনে রেশন কার্ড সংক্রান্ত যাবতীয় ফর্ম জমা দেওয়ার ব্যবস্থা চালু হবে। তখনও অবশ্য অফলাইনে খাদ্য দপ্তরের স্থানীয় অফিসে গিয়েও সব ধরনের ফর্ম জমা দেওয়া যাবে, এমনটাই জানাচ্ছে প্রকাশিত খবর।

বাংলা ওই সংবাদপত্রে প্রকাশিত খবর মোতাবেক এখন রেশন কার্ড সংক্রান্ত নানা ধরনের কাজের জন্যে তিন থেকে ১০ নম্বর ফর্ম রয়েছে। ভর্তুকির খাদ্যসামগ্রী পাওয়ার রেশন কার্ডে পরিবারের সব সদস্যর নাম অন্তর্ভুক্ত করার জন্য তিন নম্বর ফর্মে আবেদন করতে হয়। পরিবারের কোনও সদস্যর নাম অন্তর্ভুক্ত করতে হলে চার নম্বর ফর্মে আবেদন করতে হয়। রেশন কার্ডে নাম, ঠিকানা প্রভৃতি সংশোধনের জন্য আছে পাঁচ নম্বর ফর্ম।

ডিলার পরিবর্তন করা, কার্ড হারিয়ে বা নষ্ট হয়ে যাওয়া সহ নানা কাজের জন্য আলাদা ফর্ম আছে।এখন ১০ নম্বর ছাড়া বাকি সব ফর্ম অফিসে গিয়ে হাতে জমা করা বাধ্যতামূলক। খাদ্য দফতরের ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া যাবে এই সমস্ত ফর্ম। আগামীদিনে পুরোপুরিভাবে অনলাইন পরিষেবা চালু হলে ৩ থেকে ৯ নম্বর ফর্মও পাওয়া যাবে সেখানে। তথ্য সূত্র- বাংলা এক সংবাদপত্র।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ