চট্টগ্রাম: আফগানিস্তান লেগ-স্পিনার রশিদ খানের মুকুটে জুড়তে চলেছে নয়া পালক। বৃহস্পতিবার থেকে চট্টগ্রামে শুরু হতে চলেছে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান একমাত্র টেস্ট। জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে এই ম্যাচে প্রথমবার অধিনায়ক হিসেবে পাঁচদিনের ক্রিকেটে জাতীয় দলকে নেতৃত্ব প্রদান করবেন রশিদ খান। আর ক্যাপ্টেন আর্মব্যান্ড হাতে মাঠে নামার সঙ্গে সঙ্গেই এক অনন্য নজিরের অধিকারী হবেন আফগান লেগ-স্পিনার।

বিশ্বকাপে হতাশাজনক পারফরম্যান্সের পর তিনটি ফর্ম্যাটেই আফগানদের দলনায়ক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন রশিদ। স্বাভাবিকভাবেই বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একমাত্র টেস্টে অধিনায়ক হিসেবে দলকে নেতৃত্ব দিতে দেখা যাবে নয়া অধিনায়ককে। আর নয়া অধিনায়ক হিসেবে বৃহস্পতিবার মাঠে নামার সঙ্গে সঙ্গেই তাতেন্দা তাইবুকে ছাপিয়ে বিশ্বক্রিকেটের কনিষ্ঠ ক্রিকেট অধিনায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবেন আফগান লেগ-স্পিনার রশিদ। অর্থাৎ জিম্বাবোয়ে অধিনায়ক হিসেবে তাইবুর নজির ভেঙে নয়া নজির তৈরি হতে চলেছে রশিদের হাত ধরে।

২০০৪ তাতেন্দা তাইবু ২০ বছর ৩৫৮ দিনে কনিষ্ঠ অধিনায়ক হিসেবে জিম্বাবোয়ের দায়িত্বভার গ্রহণ করে সেট করেছিলেন নয়া রেকর্ড। যা অক্ষত ছিল বিগত ১৫ বছর ধরে। বৃহস্পতিবার ২০ বছর ৩৫০ দিনে জিম্বাবোয়ের প্রাক্তন অধিনায়ককে টপকে নয়া রেকর্ড সেট করতে চলেছেন রশিদ। অর্থাৎ, ৮ দিনের ব্যবধানে পনেরো বছরের রেকর্ড ভেঙে নতুন রেকর্ড সেট করতে চলেছেন নয়া আফগান অধিনায়ক। স্বাভাবিকভাবেই উচ্ছ্বসিত রশিদ নজিরের সায়াহ্নে দাঁড়িয়ে জানিয়েছেন, ‘নতুন ভূমিকায় দলে আমি আমার সেরাটা উজাড় করে দেব। ইতিবাচক মনোভাব নিয়ে খেলাটাকে উপভোগ করার চেষ্টা করব।’

উল্লেখ্য, ২০১৭ টেস্ট ক্রিকেটের ছাড়পত্র জোগাড় করার পর এযাবৎ ভারত ও আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে মাত্র দু’টি টেস্টে অংশগ্রহণ করেছে আফগানিস্তান। আসঘর আফগানের নেতৃত্বে ভারতের বিরুদ্ধে মাত্র দু’দিনেই হারতে হলেও দ্বিতীয় টেস্টে আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৭ উইকেটে জয় ছিনিয়ে নিয়েছিল আফগানরা। এরপর এপ্রিলে আফগানকে সরিয়ে নয়া টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে আফগানিস্তান ক্রিকেট ঘোষণা করে রহমত শাহের নাম। কিন্তু বিশ্বকাপের পর তিন ফর্ম্যাটেই রশিদকে অধিনায়ক হিসেবে ঘোষণা করায় কোনও টেস্টে নেতৃত্ব না দিয়েই সরে যেতে হয় রহমতকে।

এদিকে চট্টগ্রামে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান একমাত্র টেস্টে থাকছে বৃষ্টির ভ্রুকুটি। এরইমধ্যে ঘরের মাঠে স্পিনিং ট্র্যাকে বিপক্ষকে বেকায়দায় ফেলার স্ট্র্যাটেজি সাজাতে ব্যস্ত বাংলাদেশ। তবে আফগানদের অন্তর্বর্তীকালীন কোচ অ্যান্ডি মোলস একেবারেই ডরাচ্ছেন না বিপক্ষকে। তবে সমীহ করছেন শাকিবদের।