নয়া দিল্লি:ধর্ষণ এবং পক্সো মামলা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিতে চলেছে কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবি শঙ্কর প্রসাদ জানিয়েছেন তিনি প্রতিটা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখবেন এই সকল মামলা সংক্রান্ত তদন্ত দুমাসের মধ্যে শেষ করতে।

এছাড়াও যাতে ছয়মাসের মধ্যে এই সকল মামলা সংক্রান্ত শুনানি শেষ হয়ে যায় সেই নিয়েও তিনি চিঠি লিখবেন বলে জানা গিয়েছে । যাতে মামলার ক্ষেত্রে দীর্ঘ সময় না লাগে। নির্যাতিতারা যাতে দ্রুত ন্যায়বিচার পেতে পারে সেই কারণে এই পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে।

হায়দরাবাদ দিশা কাণ্ড এবং উন্নাওয়ের নির্যাতিতা তরুণীর গায়ে আগুন লাগানোর ঘটনা সামনে আসার পর থেকে উত্তাল গোটা দেশ। দিশা কাণ্ডে অভিযুক্তদের এনকাউন্টার করে হত্যা করার ঘটনার পর থেকে দেশের একাংশ চাইছেন এই একই রকম শাস্তি যাতে সকল অভিযুক্তদের দেওয়া হয়। পাশাপাশি উন্নাও কাণ্ডে দোষীরা ছাড়া পেয়ে কি করে অভিযোগকারিনীর উপরে হামলা করতে পারে তা নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন। সামনে এসেছে প্রশাসনের ব্যর্থতা। যদিও কর্তব্যে গাফিলতির অভিযোগ এনে উন্নাওয়ের ৭ পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়ে উত্তরপ্রদেশ প্রশাসন।

আরো পড়ুন – আকাশে হঠাৎ-ই ‘ড্রাগন মেঘ’, অবাক-আশঙ্কায় বাসিন্দারা

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন মামলা যাতে দ্রুত শেষ করা হয় তাই ফাস্ট ট্র্যাক কোর্টে মামলার শুনানি হবে। কেন্দ্রের তরফ থেকেও এই সংক্রান্ত মামলাতে দ্রুততা দেখানোর জন্য এই ধরণের পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে। এছাড়াও ২০১২ সালে ঘটে যাওয়া নির্ভয়া কাণ্ডে নির্যাতিতা তরুণীর মা প্রশ্ন তুলেছেন আইন ব্যবস্থা নিয়ে। সব মিলিয়ে রীতিমত কঠিন পরিস্থিতির সামনে প্রশাসনিক ব্যবস্থা। রবি শঙ্কর প্রসাদ জানিয়েছেন, তিনি সকল রাজ্যর হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতিদের চিঠি লিখে জানাবেন যাতে এই সংক্রান্ত মামলা খুব দ্রুত শেষ করা হয়।