মুম্বই- দেখতে দেখতে একটা বছর পার। ২০১৮-র ঠিক এই দিনেই সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন দীপিকা পাডুকোন ও রণবীর সিং। টানা ৬ বছর সম্পর্কে থেকে উড়ে গিয়েছিলেন ইতালির লেক কোমোতে। সেখানেই রাজকীয় কায়দায় চারহাত এক করেছিলেন এই দুই তাবড় তারকা। সেখান থেকে দেশে ফিরে হয়েছিল একের পরে এক রিসেপশন। প্রায় এক মাস ধরে চলেছিল রণবীর-দীপিকার বিয়ের রেশ।

তার পরে দুজনেই ছবির কাজে যোগ দিয়েছিলেন। কখনও মুম্বইয়ের বাড়িতে একসঙ্গে, আবার কখনও ছবির কাজের জন্য পরস্পরের থেকে দূরেও থেকেছেন দুজনে। এভাবেই দেখতে দেখতে এক বছর কেটে গেল। আর দীপিকা রণবীরের প্রথম বিবাহবার্ষিকী বলে কথা! তাই এই দিনেও যে তাঁদের স্পেশাল প্ল্যান থাকবে তা বলাই বাহুল্য। কিন্তু এই দিন কোনও পার্টি না। বরং পরিবারের সঙ্গে নিজেদের মতো করেই সেলিব্রেট করবেন দীপবীর। ‌বুধবার রাতেই রণবীর ও দীপিকা দুজনেই পরিবার সমেত গিয়েছেন তিরুপতির মন্দিরে। এদিন মন্দির দর্শন করাই তাঁদের প্ল্যান বলে জানা যাচ্ছে।

ইতিমধ্যেই তারকা জুটির ছবি ভাইরাল। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, দুজনেই সাবেকী পোশাক বেছে নিয়েছেন এই দিনের জন্য। দীপিকা পরেছেন একটি ভারী লালের উপর সোনালি দিয়ে কাজ করা শাড়ি। গলায় ভারী সোনার নেকলেস ও চোকার ও সিঁথিতে চওড়া সিঁদুর পরায় আরও সাবেকী লাগছে তাঁকে। অন্যদিকে রণবীর পরেছেন সোনালি রঙের একটি শেরওয়ানি। জানা যাচ্ছে, তিরুপতির মন্দির ঘোরার পরে তাঁরা যাবেন পদ্মাবতী মন্দিরে।

এখানেই শেষ নয়। এর পরে ১৫ নভেম্বর তাঁরা পৌঁছবেন অমৃতসরের স্বর্ণমন্দিরে। প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে রণবীর কপিল দেবের বায়োপিক ৮৩ নিয়ে ব্যস্ত। এই ছবিতে দীপিকাই তাঁর বিপরীতে রয়েছেন। অন্যদিকের দীপিকা ছপক ছবির শ্য়ুটিং শেষ করেছেন। ছবিটি মুক্তির অপেক্ষায়।