মুম্বই: মুখোপাধ্যায়ের বাড়ির পুজো বরাবরই জমজমাট। দূর-দুরান্ত থেকে মুখোপাধ্যায় ফ্যামিলি-র সব্বাই এক জোট হয়ে আনন্দে মেতে ওঠেন বাড়ির ঠাকুর দালানে। জমিয়ে অঞ্জলি, আরতির ফাঁকে আড্ডা, পেট পুজো, যেন গোটা বাংলা উঠে আসে মুখোপাধ্যায়ের বাড়ির চাতালে । তবে সব কিছু ছাপিয়ে গোটা মুম্বই জুড়ে মুখোপাধ্যয় বাড়ির ভোগের প্রচুর নাম। খিঁচুড়ি, লাবড়া, পায়েস তো থাকেই, সঙ্গে পাতে উঠে আসে নানা বাহারি পুজোর রান্না।

বাড়ির মেয়েদের পড়নে সেদিন শাড়ি। গায়ে গয়না। ছেলেরা পঞ্জাবি-পাজামা। কোমর বেঁধে নেমে পড়েন ভোগ বিতরণে। ‘হেলিকপ্টার ইলা’ প্রমোশনে এসে কাজল জানিয়ে গিয়েছেন, ” ছোট্টবেলায় সকলের পাতে নুন ও ভাজা দিতেন তাঁরা। আর এখনও সেই কাজটা চলে। তবে শুধু নুন আর ভাজায় আটকে নেই।”

আরও পড়ুন: ‘আমার আজকের মেনু পোলাও আর মাংস’

তবে এবছর মুখোপাধ্যায় বাড়ির মিস করছে মুম্বইয়ের জুহু এলাকা। কারন এবার থেকে এখানে আর হবে না নর্থ মুম্বই সার্বজনীন দুর্গা পুজো সমিতির পুজো। ভেনু বদল হয়েছে মায়ের। এবছর থেকে ভিলে পার্লের টোবাকো হাউসে হবে মা’য়ের পুজো।

আরও পড়ুন: # Metoo ‘সলমন ও তাঁর ভাইরা মিলে আমাকে ধর্ষণ করেছিল’

এই প্রসঙ্গে দেবু মুখোপাধ্যায় ও কৃষ্ণা মুখোপাধ্যায় বলেন, ” অনেকদিন ধরে ভিলে পার্লের এই জমিটি নিয়ে একটি বিতর্ক ছিল। যা এবছর মায়ের আর্শিরবাদে দূর হয়েছে। তাই এখানে আমরা মা’য়ের আরাধনায় ব্যবস্থা করেছি। তাছাড়া এখানের জায়গা টিউলিপ স্টার থেকে অনেক বড়। এতে আরও বেশি মানুষ আসতে পারবেন।