মুম্বই: বলিপাড়ার নয়া জুটির পথের কাঁটা হলেন পরিচালক করণ জোহার৷ যদিও এই তারকা জুটির সঙ্গে শুধু পেশাগত সম্পর্কই নয়, ব্যক্তিগত সম্পর্কও বেশ ভালো রয়েছে করণের৷ এই দুই তারকা হলেন রণবীর এবং আলিয়া৷ সম্প্রতি করণের জন্য এই দুই অভিনেতাই লক্ষীলাভ থেকে বঞ্চিত হলেন৷

আসলে করণ জোহার প্রযোজিত আপকামিং ছবি ‘ব্রহ্মাস্ত্র’তে অনস্ক্রিন এই প্রথমবার জুটি বাঁধতে চলেছেন রণবীর এবং আলিয়া৷ ছবিতে এই দুজন ছাড়াও মুখ্য ভূমিকায় রয়েছেন অমিতাভ বচ্চন৷ ছবিটি মুক্তি পাবে ২০১৯-এ৷ তবে মুক্তির আগেই রণবীর-আলিয়া জুটি নিয়ে ইতিমধ্যেই বি-টাউনে জোড় গুঞ্জন চলছে৷ কারণ ক্যামেরার বাইরে দুজনের সম্পর্ক বেশ গাঢ় হচ্ছে নিত্যদিন৷ আর এই জুটির অফস্ক্রিন রসায়নে মজলেন একটি ব্যবসায়িক সংস্থা৷ দুজনকে ব্র্যান্ড অ্যাম্বেসেডর বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ওই সংস্থাটি৷ এমনকি তারকা জুটি রাজিও ছিলেন একসঙ্গে কাজ করতে৷

আরও পড়ুন: কেন গ্রেফতার হলেন বাংলাদেশি নায়িকা সাদিয়া ?

কিন্তু বিষয়টি করণের কানে যেতেই ঘুম উড়ে গেল তাঁর৷ তড়িঘড়ি দুই তারকার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে কাজটি করতে নিষেধ করলেন তিনি৷ করণ সাফ জানিয়ে দেন, ছবি মুক্তি আগে দুজনে একসঙ্গে কোনরকমভাবে লাইমলাইটে না আসা চলবে না৷ কারণ এই জুটিকে তিনিই সবার আগে দর্শকদের সামনে দেখাতে চান৷ যদিও রণবীর এবং আলিয়া করণকে মেন্টর বলে মানেন, ফলে তাঁর কথা ফেলতে পারলেন না দুজনে৷ অতঃপর তাঁরা ফিরিয়ে দিলেন এই কোটি টাকার প্রজেক্টটিকে৷ যদিও এতে কিন্তু মোটেও চটে নেই তারকা জুটিটি৷

তবে দুজনকে একসঙ্গে স্ক্রিনস্পেশ শেয়ার করতে বারণ করলেও প্রেম কিন্তু করছেন খুল্লামখুল্লা৷ প্রায়শই দুই তারকা তাঁদের পরিবারকে নিয়ে ডিনারে বা লাঞ্চে যান, কখন মুভি ডেটে একসঙ্গে যান৷ এমনকি মিডিয়ার সামনেও একজন অপরজনের প্রশংসা সবসময়ই পঞ্চমুখ৷ সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে রণবীর কাপুর জানান, “আলিয়া আমার সঙ্গে থাকলে আমি ইতিবাচক প্রভাব ফিল করি৷ ও অনেক বিনয়ী এবং কাজ পাগল একজন মানুষ৷ আমি একজন অভিনেতা হিসাবে ওকে খুব শ্রদ্ধা করি৷ ওর সঙ্গে থেকে আমি অনেক সমৃদ্ধবোধ করি৷ আমি এই ইন্ডাস্ট্রিতে ১০ বছর ধরে আছি৷ কিন্তু ওর মতো মানুষ খুব কম দেখেছি৷”

আরও পড়ুন: নয়া সফরে সৃজিত-স্বাস্তিকা

আপাতত মুক্তির অপেক্ষায় রাজকুমার হিরানী পরিচালিত আপকামিং ছবি ‘সঞ্জু’৷ ২৯ জুন মুক্তি পাবে সিনেমাটি৷ ফিল্মটিতে রয়েছেন পরেশ রাওয়াল, সোনম কাপুর, দিয়া মির্জা, ভিকি কৌশল, অনুষ্কা শর্মা, জিম সর্ব সহ আরও অনেককে৷